মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে এক যুবকের মৃত্যু

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আদমপুর ইউনিয়নের ছনগাঁও গ্রামে খুঁটির টানা তারের আর্থিং লাইনে বিদ্যুতায়িত হয়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টায় পল্লী বিদ্যুতের আর্থিং লাইনে বিদ্যুতায়িত হলে হাসপাতালে নেয়ার পর জিলন মিয়া (২৭) নামে এক যুবকের মৃত্যু নিশ্চিত করেন চিকিৎসক।

স্থানীয় গ্রামবাসী জানান, আদমপুর ইউনিয়নের ছনগাঁও গ্রামের গোপাল সিংহের বাড়ির সামনে মূল সড়কের উপর দিয়ে মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুতের লাইন টানা রয়েছে। বিদ্যুৎ লাইনের খুঁটির সাথে টানা তারের মাধ্যমে আর্থিং লাইন সংযুক্ত। তবে কোন ত্রুটি জনিত কারণে আর্থিং লাইনে বিদ্যুৎ সঞ্চালিত হয়ে পড়ে। সকালে জিলন মিয়া ওই তারে হাত দিলে বিদ্যুতায়িত হয়ে পড়েন। তাকে দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন শুকনো বাঁশ দিয়ে তাকে বিদ্যুতের তার থেকে ছাড়ালে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এসময়ে তাকে দ্রুত মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত জিলন মিয়া ছনগাঁও গ্রামের মিলন মিয়ার পুত্র।

আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবদাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ছেলেটি খুবই গরিব। কাপড়ের ব্যবসা করতো। তার ঘরে গর্ভবতী স্ত্রীও রয়েছে। পরিবারটিতে এখন অসহায়ত্ব অবস্থা। তবে আর্থিং তারে বিদ্যুতায়িত হয়ে মারা যাওয়ার বিষয়টি মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির গাফিলতি বলে মনে হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, লাশের ময়না তদন্তের জন্য কমলগঞ্জ থানা পুলিশ মর্গে প্রেরণের জন্য নিয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কমলগঞ্জ জোনালের ডিজিএম গণেশ চন্দ্র দাস বলেন, এখানে আমাদের কোন ত্রুটি পাওয়া যায়নি। আর্থিং লাইনে বিদ্যুৎ সঞ্চালিত হওয়ার কথা নয়। শারীরিক কোন সমস্যাজনিত কারণে লোকটি মারা যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরিফুর রহমান বলেন, ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *