ঠাকুরগাঁওয়ে অন্তঃস্বত্তা স্ত্রীর হাত-পাঁ ভেঙ্গে দিয়েছে নেশাখোর স্বামী

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ঃ ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রহিমানপুর ইউনিয়নের পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় স্ত্রীকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে দুই হাত ও দুই পাঁ ভেঙে দিয়েছে পাষন্ড স্বামী নূর ইসলাম। পুলিশ আটক তাকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম।

আহত পারভিন আক্তার (২৪) জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়বাড়ী ইউনিয়নের মালঞ্চা গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে।

পারভিনের পরিবার সুত্রে জানা যায় নূর ইসলাম আগে থেকে নেশা করতো বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। আট মাস আগে নূর ইসলামের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। সে এখন ৬ মাসের অন্তঃস্বত্তা “বিয়ের পর থেকেই নূর ইসলাম প্রায় সময় নেশা করে বাড়ি ফিরতো এবং স্ত্রীকে মারপিট করত। বৃহস্পতিবার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার মালঞ্চা গ্রামে বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসে। শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকালে স্বামীর বাড়ি থেকে ফিরে যায়। স্বামীর বাড়িতে আসা মাত্রই সে তার স্ত্রীকে চড়-থাপ্পড় মারতে শুরু করে। এক পর্যায়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে লোহার রড দিয়ে পিটাতে থাকে এবং তার দুই হাত ও দুই পাঁ ভেঙে দেয়।”

পরে পরিবারের লোকজন দরজা ভেঙে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে । পারভিন ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আাছেন।

ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রাকিবুল আলম বলেন, “পারভিনের দুই হাত ও দুই পাঁ রড জাতীয় কিছু দিয়ে আঘাত করে ভেঙে দেয়া হয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে।

ঠাকুরগাঁও থানার ওসি তানভিরুল বলেন, খবর পাওয়ার সাথে সাথে অভিযান চালিয়ে নূর ইসলামকে আটক করা হয়। পরে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *