বগুড়ার শেরপুর সন্ত্রাসী নিয়ে বাড়ীতে হামলা, ভাংচুর-লুটপাটের অভিযোগ

জিয়াউদ্দিন লিটন,স্টাফরিপোর্টার: : বগুড়ার শেরপুর উপজেলার সীমাবাড়ী ইউনিয়নের নিশিন্দারা গ্রামে বসতবাড়ীতে ভাড়াটে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে হামলা চালিয়ে বাড়ী ঘর ভাংচুর ও ২ লাখ টাকা লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। শেরপুর থানায় দেয়া লিখিত অভিযোগসূত্রে জানা যায়, উপজেলার নিশিন্দারা গ্রামের মৃত জালাল উদ্দীনের ছেলে মেরাজুল ইসলাম ৫৬ শতাংশ জমি নিজে কিনে ও পৈতৃকভাবে অংশ প্রাপ্ত হয়। এ জমিটি নিয়ে তার চাচা জয়নাল আবেদীনের সাথে বিরোধ চলে আসছিল। পরে, বিষয়টি নিয়ে উভয়পক্ষ পাল্টাপাল্টি থানায় অভিযোগ করলে স্থানীয় ইউপি সদস্য, চেয়ারম্যান, গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শেরপুর থানার ২জন এস, আই এক সালিশী বৈঠক করে। পরে, উভয় পক্ষের সম্মতিক্রমে দুইজন আমিন (ভূমি জরিপকারক) উপস্থিত থেকে মিমাংসা করে সীমানা নির্ধারণ করে দেয়।

কিন্তু, বিষয়টি না মেনে জয়নাল আবেদীন ও তার ছেলে রোকন, সেলিম, শামীম, মোকলেছ ও স্থানীয় ভাড়াটে সন্ত্রাসী হযরত আলীর ছেলে কামাল, শাকিল, আলমগীরসহ প্রায় ৩০ জনের একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ভোরে তাদের নতুন নির্মিত বসতবাড়ীতে হামলা চালিয়ে ৪০ হাত একটি টিনের বাড়ী ভাংচুর করে। পরে তাদের থাকার ঘরে রক্ষিত বাক্সের তালা ভেঙ্গে নগদ ২ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। শেরপুর থানার এসআই সাচ্চু বিশ্বাস ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করে সেখান দেশীয় কিছু অস্ত্র লাঠিসোটা উদ্ধার করেন। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য বাবু পালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। সীমাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান বাবু গৌরদাস রায় চৌধুরী পূর্বে সালিশী বৈঠকের বিষয়টি স্বীকার করেন। এবং ভাংচুরের বিষয় শোনার পর তিনি সেখানে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে পাঠিয়েছেন বলে জানান। এ ব্যাপারে শেরপুর থানার এস,আই জাহিদ জানান, এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *