সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করল ভ্রাম্যমান আদালত

দ্বীন মোহাম্মাদ সাব্বির,স্টাফ রিপোর্টার:

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কালিয়া হরিপুর ইউনিয়নে বাল্যবিয়ে দেয়ার চেষ্টা। আয়োজনটি বন্ধ করে দেন সিরাজগঞ্জ সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ। শনিবার (২২ আগস্ট) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সপ্তম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীর বিয়ে বন্ধ করেন এসিল্যান্ড।

ভ্রাম্যমাণ আদালত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, সিরাজগঞ্জ সদরের কালিয়া হরিপুর এলাকায় সপ্তম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ দেওয়ার আয়োজন চলছিল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার (২২ আগস্ট) ভ্রাম্যমাণ আদালত সংগীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়ে কনের বাড়ীতে উপস্থিত হন।

তখন কনের বাড়ীতে চর ছোনগাছা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী (১৪) এর বিয়ের আয়োজন চলছিল। কনে অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বাল্যবিবাহ বন্ধ করে। এসময় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে বাল্যবিবাহের তার মাতা জয়নব এর নিকট থেকে ১৮ বছর বয়স হওয়ার পূর্বে বিয়ে দিবেন না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয় এবং এসময় বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর আওতায় ৪,৫০০/- (চার হাজার পাঁচশত টাকা) অর্থদন্ড দেয়া হয়।

এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ জানান, এসময় কনের অভিভাবকদের বাল্যবিবাহের কুফল সম্পর্কে বুঝালে তারা তাদের ভুল বুঝতে পারেন এবং তার মেয়েকে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিবেন না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয়। তিনি আরও বলেন বাল্যবিবাহের ব্যাপারে কোনো প্রকার ছাড় দেয়ার সুযোগ নেই। ভবিষ্যতে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে ।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন পৌর ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম ও আনসার ব্যাটালিয়ন এর সদস্যবৃন্দ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *