হতদরিদ্রদের ভাতা ও ভিজিডি কার্ডের চাল আত্মসাতের দায়ে ৩ ইউপি সদস্য বরখাস্ত

দ্বীন মোহাম্মাদ সাব্বির, স্টাফ রিপোর্টার:

হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত বয়স্ক ও বিধবা ভাতা এবং ভিজিডির চাল উত্তোলন করে আত্মসাৎ করার অভিযোগে সিরাজগঞ্জের কাজিপুরের তিন ইউপি সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।বরখাস্তরা হলেন- খাসরাজবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য শহিদুল ইসলাম, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দুলাল হোসেন ও গান্ধাইল ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আলাউদ্দিন জোয়াদ্দার।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) বিকেলে তাদের বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়।

শুক্রবার (১৪ আগস্ট) বিকেলে এ সংক্রান্ত একটি চিঠির অনুলিপি প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদ হাসান সিদ্দিকী বলেন, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহম্মেদ চৌধুরীর সই করা চিঠি ওই তিন ইউপি সদস্যের নামে পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে সাময়িক বরখাস্ত তিনজন ইউপি সদস্যকে কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না- তা জানতে চেয়ে আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে চিঠির অনুলিপি আমার কাছে এসেছে জানিয়ে ইউএনও বলেন, গত ১৮ জুন খাসরাজবাড়ী ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলামে বিরুদ্ধে বয়স্ক ও বিধবা ভাতার টাকা অবৈধভাবে উত্তোলন  করে আত্মসাতের অভিযোগ করেন সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের বাসিন্দা হযরত আলী। এর আগে ২৮ মে একই ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য দুলাল হোসেনের বিরুদ্ধে ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করেন রফিকুল ইসলাম। এছাড়াও গান্ধাইল ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন জোয়াদ্দারের বিরুদ্ধে ভিজিডির তালিকাভুক্তদের চাল না দিয়ে সহযোগীদের সহায়তায় উত্তোলন করে আত্মসাতের লিখিত অভিযোগ করেন গান্ধাইল গ্রামের একাধিক ব্যক্তি।

স্থানীয়ভাবে তদন্তে এসব অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের সুপারিশ করে জেলা প্রশাসক বরাবর প্রতিবেদন পাঠানো হয়। জেলা প্রশাসক সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানোর পর অভিযুক্ত ইউপি সদস্যদের সাময়িক বরখাস্তের চিঠি দিয়েছে মন্ত্রণালয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *