দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের প্রলোভন দেখিয়ে সর্বস্ব লুট: নারীচক্রের মুলহোতাসহ আটক ২

স্টাফ রিপোর্টার: 
সিরাজগঞ্জে প্রেমের প্রলোভন দেখিয়ে পুরুষদের ঘরের ভিতর আটক করে সর্বস্ব লুটে নেওয়া নারী চক্রের মুলহোতাসহ ২ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। ঈদকে সামনে রেখে শহরের বিভিন্ন এলাকায় বাসা ভাড়া বা নারী চক্রের অনুসারীদের বাসায় নিয়ে আটক করে বিভিন্ন বখাটে ছেলেদের দিয়ে জিম্মি করে লক্ষ্য লক্ষ্য টাকা হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে।
 
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) বিকেলে শহরের মুজিব সড়কের সৌরভ ভিলায় এক ভাড়াটিয়া বাসায় প্রেমের প্রলোভন দেখিয়ে জাহাঙ্গীর ও ফিরোজ নামের এক যুবককে আটক করে এই নারী চক্র। পরে সদর থানার চৌকস একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীসহ ২ জনকে আটক করে। এরা বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন নামে পরিচিত যেমন ফারজানা, আয়লা সিদ্দিকি, স্বপ্না, ডিবি লিলিসহ নানা প্রকার নাম ব্যবহার করে থাকে।
 
আটককৃতরা হলেন, নারী চক্রের মুলহোতা স্বপ্না খাতুন (৩০), তার অপকর্মের সহযোগী পৌর এলাকার দিয়ারধানগড়া মহল্লার আব্দুল আজিজ এর ছেলে স্বামী মোঃ সাদ হোসেন (২২)। এ ঘটনায় স্বপ্নার ছেলেকে আটক করা হলেও পরে মানবিক কারনে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
 
সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ মককারম হোসেন জানান, দীর্ঘদিন ধরে এই নারী চক্রটি শহরের বিভিন্ন এলাকায় ক্ষনিকের জন্য বাসা ভাড়া নিয়ে এই অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাচ্ছে। গোপান সংসাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে মুজিব সড়কের সৌরভ ভিলায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাজ থেকে একটি স্মার্ট ফোন, সাউন্ড বক্স উদ্ধার করা হয়।
 
তিনি আরও বলেন, সদর উপজেলার খোকশাবাড়ী ইউপি’র চন্দ্রকোনা গ্রামের জাহাঙ্গীর ও ফিরোজকে প্রেমের প্রলোভন দেখিয়ে সুকৌশলে ওই বাড়ীতে নিয়ে যায়। পরে কয়েকটি বখাটে ছেলেদ্বারা তাদেরকে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারন করে। পরে তাদের মারধর ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ১ লক্ষ্য টাকা দাবী করে। দাবীকৃত ৪০ হাজার টাকা পরিষদ করেন। পরে জাহাঙ্গীর ও ফিরোজ এসে থানায় ওই নারী চক্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে স্বপ্নাসহ দুইজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন এবং স্বপ্নার দেওয়া তথ্যে শহরের একই পরিবারের ৩/৪ জন নারী চক্র রয়েছে বলে জানিয়েছেন। এদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সন্ধ্যায় আটককৃদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *