কালিগঞ্জে কাবিখা প্রকল্পের কাজ পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার

এস,এম,হাবিবুল হাসান :
সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে সিডিউলের এস্টিমেট অনুযায়ী কাজের বিনিময়ে খাদ্য কাবিখা প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি ও গুণগত মান ঠিক আছে কি না তা সরেজমিনে পরিদর্শন করেছেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার হোসেন আলী খন্দকার। এ সময় প্রকল্পের কাজ দেখে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার হোসেন আলী খন্দকার সন্তোষ প্রকাশ করেন।

রবিবার(০৫ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টায় কালিগঞ্জ উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের খাজাবাড়িয়া নবাব কারিকরের বাড়ি হতে আনসার কারিকরের বাড়ি অভিমুখে রাস্তা সংস্কার ও রতনপুর ইউনিয়নের মলেংগা আবু হাসানের বাড়ির পাশ হতে রফিক বেলের বাড়ির অভিমুখে রাস্তা সংস্কারের কাজ পরিদর্শন করেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কালিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক রাসেল, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিফাত উদ্দীন, প্রকল্প কমিটির সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গাইন, ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুল হোসেন খোকন প্রমূখ।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন, দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন, চাম্পাফুল ইউনিয়ন, নলতা ইউনিয়ন, তারালী ইউনিয়ন, মথুরেশপুর ইউনিয়ন, ধলবাড়িয়া ইউনিয়ন, রতনপুর ইউনিয়ন ও মৌতলা ইউনিয়নে বরাদ্দকৃত কাবিখা প্রকল্পের প্রায় ৪০ টন গম পুলিশ আটক করে। একই সাথে সরকারি গম পাচারের অভিযোগে পুলিশ তারালী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম, চাম্পাফুল ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল গণি, ট্রাক চালক লিয়াকত সরদার ও নলতা শরীফ এলাকার মৃত কামরুল হুদার ছেলে আব্দুল খালেক ঘোরামীকে আটক করে ৫৪ ধারায় কারাগারে প্রেরণ করে।

এ ঘটনায় সরকারি কাজ না করে গমগুলো উত্তোলন পূর্বক পাচার করা হচ্ছিল মর্মে ছয়জনের নামে মামলা করে দুদক।

এরপর দফায় দফায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে উক্ত প্রকল্পের কাজগুলো পরিদর্শন করা হয় এবং সকলেই প্রকল্পের কাজ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *