ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে শুরু হয়েছে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম

এস,এম,হাবিবুল হাসান :
সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরে দীর্ঘ প্রায় ৩ মাস পর শুরু হয়েছে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম। ফলে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে পেয়েছে বন্দর ব্যবহারকারীদের মাঝে।

শনিবার(২০ জুন) বিকাল ৩ টায় ভোমরা স্থলবন্দর সীমান্তরেখায় উভয় দেশের প্রতিনিধিদের আলোচনা সাপেক্ষে শুরু এই আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম।

এর আগে চলতি বছরের গত ২৪ মার্চ থেকে মহামারি করোনার সংক্রমন ঠেকাতে ভারত ও বাংলাদেশ লকডাউনের কবলে পড়ে এ বন্দর দিয়ে সকল প্রকার আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়।

ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোশিয়েশনের সভাপতি আলহাজ্ব এইচ এম আরাফাত হোসেন জানান, বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারনে উভয় দেশের লকডাউন ঘোষনা করায় গত ২৪ মার্চ থেকে এ বন্দর দিয়ে সকল প্রকার আমদানী-রপ্তানী কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। এরপর গত পহেলা জুন সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসনসহ কাস্টমস্ ও বন্দর কর্তৃপক্ষ এবং সিএন্ডএফ কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনান্তে স্বাস্থ্য বিধি মেনে গত ২ জুন থেকে আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম চালু রাখার সিদ্বান্ত নেয়া হয়। এ মর্মে ভারতীয় ঘোজা সিএন্ডএফ এজেন্ট কার্গো ওয়েলফেয়ার এ্যাসোসিয়েশনকে বন্দরের কার্যক্রম চালুর জন্য লিখিত ভাবে চিঠিও পাঠানো হয়। কিন্তু সে দেশের (ভারতীয়দের) কিছু আভ্যন্তরীন জটিলতার কারনে এত দিন আমাদানী-রপ্তানী কার্যক্রম শুরু হয়নি। তবে তাদের জটিলতা নিরসন শেষে দীর্ঘ ২ মাস ২৬ দিন পর আজ শনিবার বিকালে ঘোজাডাঙ্গা জিরো পয়েন্ট থেকে আমাদানী-রপ্তানী কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, সে দেশের বসিরহাট এমএলএ দীপবিন্দু বিশ্বাসসহ সরকারী কর্মকর্তারা।

এ সময় ভোমরা স্থলবন্দর সীমান্ত জিরো পয়েন্টে উপস্থিত থেকে তাদেরকে স্বগত জানান, ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোশিয়েশনের কর্মকর্তারা। তিনি আরো জানান, শুরুতেই সীমিত পরিসরে বন্দরের আমদানী-রপ্তানী কার্যক্রম চলবে।

এদিকে, আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম শুরু হওয়ায় ভোমরা স্থলবন্দরে আবারও ফিরে এসছে কর্মচাঞ্চল্য। বন্দর ব্যবহারকারী শ্রমিক কর্মচারীসহ ব্যবসায়ীদের মাঝে ফিরে এসেছে স্বস্তির নিশ্বাস।

ভোমরা স্থলবন্দর শুল্ক ষ্টেশনের সহকারী কমিশনার রেজাউল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *