সিরাজগঞ্জে বেতন-বোনাসের দাবিতে দোকান কর্মচারীদের বিক্ষোভ

দ্বীন মোহাম্মাদ সাব্বির,বিশেষ প্রতিনিধি:
বকেয়া বেতন ও বোনাসের দাবিতে সিরাজগঞ্জে অবস্থান কর্মসূচী ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে দোকান কর্মচারীরা।

বুধবার (20 মে) সকালে বৃষ্টির মধ্যে শহরের কেন্দ্রিয় জামে মসজিদ এলাকায় বন্ধ দোকানের সামনে বকেয়া দুই মাসের বেতন ও ঈদের বোনাসের দাবিতে শ্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ করে। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে শহর প্রদক্ষিণ করার সময় অপ্রিতিকর ঘটনা এড়াতে এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় না থাকায় পুলিশ মিছিলটি বন্ধ করে দেয়।

দোকান-কর্মচারীরা জানান, করোনার মহামারীর কারনে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সব দোকান বন্ধ করে দেয়। দুই মাস বেশী সময় ধরে সব দোকান বন্ধ থাকায় দোকান কর্মচারীরা তাদের পরিবার নিয়ে না খেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। দোকান বন্ধ থাকায় মালিকরাও তাদের বেতন দিচ্ছে না। যে কারনেই দোকান-কর্মচারীরা রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছে।

এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ শহর দোকান মালিক সমিতির আহবায়ক গোলাম মোস্তফা তালুকদার জানান, সরকারের দোকান খোলার সিদ্ধান্তের পর কর্মচারীদের অর্ধেক বেতন দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় মালিকরা। কিন্তু ৪ দিনের মাথায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব দোকান পুনরায় বন্ধ করে দেয়া হয়। সরকারের দোকান খোলার সিদ্ধান্তের পর ঈদের জন্য প্রতিটি দোকান মালিক নতুন করে লক্ষ লক্ষ টাকা মালামাল ক্রয় করেছেন। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুনরায় দোকান বন্ধ করে দেয়ায় দোকান মালিকরাও ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। বেচাকেনা না করতে পারলে দোকান কর্মচারীদের বোনাস তো দুরের কথা বেতন দেয়াও সম্ভব হবে না। এমতাবস্থায় মালিক কর্মচারীদের বাঁচাতে তিনদিনের জন্য দোকান খুলে দেবার দাবী জানান দোকান মালিক সমিতি নেতৃবৃন্দরা। অন্যথায় ব্যবসায়ী মহল পথে বসার উপক্রম হবে।

উল্লেখ্য, মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রাদুভাবের কারনে করোনার সংক্রামন ঠেকাতে সারাদেশের ন্যায় সিরাজগঞ্জেও অঘোষিত লকডাউনের ফলে দোকান, বিপনি বিতান, শপিংমলসহ অন্যন্য প্রতিষ্ঠান প্রায় দুই মাস যাবত বন্ধ থাকায় বেকার হয়ে পড়েছে শতশত কমচারী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *