ঠাকুরগাঁওয়ে শপিংমল খোলার দাবিতে বিক্ষোভ

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ঃ করোনাভাইরাসের সংক্রমন রোধে জেলা প্রশাসনের এক জরুরী সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক ঠাকুরগাঁওয়ের শপিংমল ও বিপনি বিতানগুলো বন্ধ ঘোষনা করে এরই প্রতিবাদে পুনরায় চালুসহ শ্রমিকদের বেতন বোনাসের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন দোকান মালিক ও শ্রমিকরা।

সোমবার (১৮ মে) জেলা প্রশাসক চত্তরে এই বিক্ষোভ করেন তারা।

স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সরকার ঘোষিত শর্তসাপেক্ষে গত ১০মে থেকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে শপিংমলগুলো খোলার অনুমতি দেয়া হয়। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে নিয়মিত বাজার মনিটরিং ও অভিযান চালিয়েও শপিংমলগুলোতে জনগণের উপচে পড়া ভিড় ঠেকানো যাচ্ছে না। ফলে গত ১৭ মে এক জরুরী সভা ডেকে বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন।

এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় করোনা সংক্রমণ রোধে ১৮ মে সকাল ৬টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য জেলার সব শপিংমল বন্ধ থাকবে। তবে নিত্য প্রয়োজনিয় জিনিস পত্রের দোকান, কাঁচাবাজার, ওষুধের দোকান খোলা থাকবে।

মালিকপক্ষের দাবি দোকান বন্ধের সিদ্ধান্তে লোকসানের মুখে পড়েছে দোকান মালিকরা। অপরদিকে কর্মচারীদের বেতন ও বোনাস ঈদের আগে পরিশোধ করা সম্ভব হবে না বলে জানান তারা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *