সিরাজগঞ্জে কাল থেকে চালু হচ্ছে করোনা নির্ণয়ের আরটিপিসিআর ল্যাবের কার্যক্রম

দ্বীন মোহাম্মাদ সাব্বির,বিশেষ প্রতিনিধি:
অবশেষে আগামী মঙ্গলবার (১৯ মে) সিরাজগঞ্জ শহীদ এম. মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে অত্যাধুনিক পলিমার চেইন রি-অ্যাকশন (পিসিআর) ল্যাবের আনুষ্ঠানিক পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে । ইতোমধ্যেই পরীক্ষার সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। এর ফলে সিরাজগঞ্জেই সম্পন্ন হবে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর পরীক্ষার সকল কার্যক্রম।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, প্রায় দেড় কোটি টাকা ব্যয়ে কলেজ প্রকল্পের ফান্ড থেকে মাইক্রোবায়োলজি ল্যাবের পিসিআর মেশিনটি কেনা হয়। তবে নতুন ভবন এবং আধুনিক ও মানমম্মত পরীক্ষাগার না থাকা ও জনবল সংকটের কথা বলে গত সাড়ে ১০ মাস মেশিনটি প্যাকেটবন্দি অবস্থায় ফেলে রাখা হয়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহযোগিতায় গত এপ্রিল মাসের ১১ তারিখে সিরাজগঞ্জ-২ আসনের সাংসদ অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবে মিল্লাত প্যাকেট উন্মোচন করে অতিদ্রুত পরীক্ষা কার্যক্রম শুরুর প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করেন। অভিজ্ঞ ল্যাব টেকনোলজিস্ট প্রেরণ এবং জনবলের প্রশিক্ষণের জন্য তাৎক্ষণিক তিনি স্বাস্থ্য অধিদফতরের ও রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) দায়িত্বপ্রাপ্তদের সাথে যোগাযোগ করেন।

শহীদ এম. মনসুর আলী মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, করোনা ভাইরাস পরীক্ষার কলেজের নতুন একাডেমিক ভবনের ৫ম তলায় অত্যাধুনিক (পিসিআর) ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। ভবনের ৫টি রুম ল্যাব হিসেবে ব্যবহার করা হবে। ইতোমধ্যেই সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। আগামী ১৯ মে বিকেল ৩টায় হাসপাতালে (পিসিআর) ল্যাবের পরীক্ষা কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে উদ্বোধন করবেন আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ও সিরাজগঞ্জ-২ (সদর-কামারখন্দ) আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপাক ডাঃ হাবিবে মিল্লাত মুন্না।

করোনা মানেই মৃত্যু নয়, সচেতনতার মাধ্যমেই করোনা মোকাবেলা সম্ভব মন্তব্য করে অধ্যক্ষ ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, করোনা ভাইরাস পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য প্রফেসর ৮ জন, প্রভাষক ৮ জন, ল্যাব টেকনিশিয়ান ৮ জনসহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সমন্বয়ে ৩১জনের একটি টিম গঠন করা হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত সিভিল সার্জন অফিস থেকে প্যাকেটজাত নমুনা সংগ্রহ করা হবে। প্রাথমিক পর্যায়ে নমুনা সংগ্রহের রিপোর্ট দিতে এক সপ্তাহ সময় লাগবে। পরবর্তীতে প্রতিদিনের নমুনা সংগ্রহের রিপোর্ট প্রতিদিনই দেয়া সম্ভব হবে।

সিরাজগঞ্জ-২ (সদর-কামারখন্দ) আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না বলেন, পিসিআর মেশিন চালুর মাধ্যমে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে সিরাজগঞ্জের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা আরেকধাপ এগিয়ে যাবে। সিরাজগঞ্জেই পরীক্ষার সকল কার্যক্রম সম্পন্ন হবে। ফলে কম সময়ে ফলাফল পাওয়া যাবে এবং অধিক পরিমাণে পরীক্ষা করা সম্ভব হবে। সিরাজগঞ্জকে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মুক্ত করতে সকল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং সার্বক্ষণিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করা হবে।

এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন ডাঃ জাহিদুর রহমান জানান, শহীদ এম. মনসুর আলী মেডিক্যাল কলেজে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য (পিসিআর) ল্যাবে আনুষ্ঠানিক পরীক্ষা কার্যক্রম উদ্বোধন হলে উপকৃত হবে সিরাজগঞ্জবাসী।তিনি আরও বলেন, প্রতিদিনই জেলার স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা করোনা সন্দেহে আক্রান্ত ব্যক্তিদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে নমুনা সগ্রহ করার পর ঢাকা-রাজশাহী ও বগুড়া ল্যাবে পাঠানো হতো। এতে রিপোর্ট আসতেও সপ্তাহখানে সময় লাগতো। এখন থেকে শহীদ এম. মনসুর আলী মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে নমুনা পাঠানো হলে দ্রুত রিপোর্টও পাওয়া সম্ভব হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *