প্রণোদনার দাবিতে সিরাজগঞ্জে কিন্ডারগার্টেন শিক্ষক-কর্মচারীদের সংবাদ সম্মেলন

স্টাফরিপোর্টার:
করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রায় ২মাস ধরে বন্ধ রয়েছে সিরাজগঞ্জের ৭শতাধিক কিন্ডারগার্টেন স্কুল। এসকল কিন্ডারগার্টেন স্কুলের ১০ হাজারেরও বেশি শিক্ষক-কর্মচারী বেতনের অভাবে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। রোববার (১০ মে) শহরের জুয়েল’স অক্সফোর্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে এক সংবাদ সম্মেলনে কিন্ডারগার্টেন উদ্যোক্তা ও শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য প্রণোদনা চালুর জন্য সরকারের কাছে দাবি জানানো হয়।

এসব কিন্ডারগার্টেনের মালিকরাও অর্থ সংকটে পড়ে শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন, বাড়িভাড়া বিদ্যুৎ বিল দিতে পারছেন না।সংবাদ সম্মেলনে স্কুল বন্ধ থাকাকালীন শিক্ষক-কর্মচারীদের মাসিক ৭ হাজার টাকা বেতন, রেশনের ব্যবস্থা, স্কুল ভবনের ভাড়া মওকুফ ও স্বল্প সূদে ঋণ দেওয়ার ব্যবস্থা করার দাবি জানান বক্তারা।

সংবাদ সম্মেলনে স্কুল বন্ধ থাকাকালীন শিক্ষক-কর্মচারীদের মাসিক ৭ হাজার টাকা বেতন, রেশনের ব্যবস্থা, স্কুল ভবনের ভাড়া মওকুফ ও স্বল্প সূদে ঋণ দেওয়ার ব্যবস্থা করার দাবি জানান বক্তারা।

সংবাদ সম্মেলনে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সিরাজগঞ্জ জেলা কিন্ডারগার্টেন সমন্বয় পরিষদের আহ্বায়ক মো. বরকতুল্লাহ বলেন, করোনা সংকটের কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে স্কুলগুলো বন্ধ রয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানগুলোর একমাত্র আয়ের উৎস ছাত্র-ছাত্রীদের টিউশন ফি। কিন্তু, তা আদায় সম্পূর্ণরূপে বন্ধ রয়েছে। ফলে এসব প্রতিষ্ঠানের ৯৮ ভাগ অস্বচ্ছল উদ্যোক্তারা পড়েছেন চরম অর্থ সংকটে। এ কারণে তারা শিক্ষকদের বেতন, বাড়িভাড়া ও বিদ্যুৎ বিল দিতেও ব্যর্থ হচ্ছেন। এতে করে জেলার ৭ শতাধিক কিন্ডারগার্টেনের দশ হাজারেরও বেশি শিক্ষক-কর্মচারী বেকার হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

এ সময় জেলা কিন্ডারগার্টেন সমন্বয় পরিষদের উপদেষ্টা রেজাউল করিম জুয়েল, সদস্য সচিব মফিজুল আলম জোয়ার্দ্দার বক্তব্য রাখেন। সংবাদ সম্মেলনে জেলার বিভিন্ন উপজেলার কিন্ডারগার্টেন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও সম্পাদকগণ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *