ধুনটে পানিতে ডুবে শিশু ও শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ
বগুড়া ধুনটে পানিতে ডুবে এক শিশু ও এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুরে উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের বিলচাপড়ী ও নলডাঙ্গা গ্রামে পৃথক এঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো- রাঙ্গামাটি গ্রামের ফয়জুল করীম তুহিনের ছেলে ধুনট সরকারি এন. ইউ. মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র মঈনুল হাসান মহিদ (১৩) ও নলডাঙ্গা গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে সাগর (৬)।
এলাঙ্গী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ তারেক হেলাল এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, গত ০২ মে রাঙ্গামাটি গ্রামের শিক্ষক ফয়জুল করীম তুহিনের ছেলে মঈনুল হাসান মহিদ তার নানা বিলচাপড়ী গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনের বাড়িতে বেড়াতে যায়। সোমবার দুপুর ২টায় মঈনুল হাসান মহিদ তার ছোট ভাই ৪র্থ শেণীর ছাত্র জাকির হোসেনকে নিয়ে বিলচাপড়ী গ্রামের বাঙ্গালী নদীতে গোসল করছিল। কিন্তু গোসল করার সময় হঠাৎ মহিদের ছোট ভাই জাকির হোসেন পানিতে ডুবে যেতে থাকে। এসময় বড় ভাই মহিদ তার ছোট ভাই জাকির হোসেনকে বাঁচিয়ে দিলেও সে গভীর পানিতে ডুবে যায়। পরে সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অনেক খোঁজাখুজির পর নদী থেকে মহিজদের মৃতদেহ উদ্ধার করে।
অপরদিকে সোমবার বিকেল ৪টায় নলডাঙ্গা গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে সাগর হোসেন বাড়ির পাশে পুকুরপাড়ে লেখাধুলা করছি। কিন্তু এসময় অসাবধানতা বসত সে পুকুরের পানিতে পড়ে ডুবে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন পুকুরের পানি থেকে শিশু সাগর হোসেনের মৃতদেহ উদ্ধার করে।
ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, পৃথকভাবে পানিতে ডুবে এক শিশু ও শিক্ষার্থীর মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এবিষয়ে কোন অভিযোগ না থাকায় তাদের লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *