বগুড়ার শেরপুরে রাস্তা দখল করে বসতবাড়ি নির্মাণ কাজে বাঁধা দেওয়ায় প্রতিপক্ষের মারপিটে আহত ৪

স্টাফরিপোর্টার:
বগুড়ার শেরপুরে রাস্তা দখল করে বসতবাড়ী নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় এক বাসিন্দার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় প্রতিপক্ষের মারপিটে বৃদ্ধা, গৃহবধূসহ ৪ জন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ব্যাপারে শেরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার সীমাবাড়ী ইউনিয়নের সীমাবাড়ী গ্রামের মৃত আবু সাইদের ছেলে মঞ্জিল হোসেন একখন্ড জমি ক্রয় করে বসত বাড়ি করে বসবাস করে আসছে। সম্প্রতি ঐ এলাকার ভূমিদস্যূ বলে খ্যাত রঞ্জুর কুট-কৌশলে আমার প্রতিবেশী আবু বক্কারকে দিয়ে আমার বসত বাড়ির জমি ক্রয় করার প্রস্তাব দেয়। আমি এতে অস্বীকৃতি জানালে তারা বিভিন্ন সময় আমাকে নানাভাবে হুমকী-ধামকী দেয়। সম্প্রতি আমার বাড়িতে চলাচলের পায়ে হাঁটার একমাত্র রাস্তার উপর অভিযুক্ত আবু বক্কার বসত বাড়ি নির্মান কাজ শুরু করে।

গত ৩০ এপ্রিল দুপুরে আমার পায়ে হাঁটার রাস্তা দখল করে বাড়ি নির্মান করার বিষয়টি আবু বক্কারকে জানালে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। পরে তার ছেলে নাঈম, মেরাজুল তার স্ত্রী নুরুন্নাহার, তার মা কাজুলী বেওয়া, শাহাদত হোসেন, সেলিম, রঞ্জু মিয়াসহ প্রায় ১০-১৫ জনের একদল সন্ত্রাসী দেশী অস্ত্র (লাঠি সোঠা লোহার রড়, রামদা) নিয়ে আমার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় আমার আত্মচিৎকারে আমার বৃদ্ধা মা রমিছা বেওয়া এগিয়ে গেলে তাদের হাতে থাকা রামদা দিয়ে আমার মায়ের মাথায় আঘাত করে। আমার মা মাটিতে লুটিয়ে পড়লে আমার স্ত্রী ও ছেলে তাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে গেলে তাদেরকেও মারপিট করে বিবস্ত্র করে।। পরে, স্হানীয় এলাকাবাসী আমাদেরকে উদ্ধার করে স্থানীয় শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার এসআই মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, রাস্তা দখল করে বাড়ি নির্মাণের বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। সরেজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *