সিরাজদিখানে গার্মেন্টসের ভিতরে মিললো ৬ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি:
করোনা দুর্যোগের মধ্যে এবং রমজান মাসকে সামনে রেখে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে সাড়ে ৬ মে. টন পিয়াঁজ মজুদ রাখায় একটি পোশাক কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছে উপজেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার টেঙ্গুরিয়াপাড়া এলাকায় একটি পোশাক কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ম্যাজিষ্ট্রেট আশফিকুন নাহার। এ সময় কারখানার মালিক রুহুল আমিন (৪৫) কে পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সে টেঙ্গুরিয়া পাড়া গ্রামের আব্দুল খালেক বেপারীর ছেলে। পিয়াঁজ গুলো ক্রোক করে কারখানায় তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে প্রশাসন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আশফিকুন নাহার জানান, ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা কালে গার্মেন্টসের ভিতরে সাড়ে ৬ মে.টন পেঁয়াজ মজুদ অবস্থায় পাওয়া যায়। গার্মেন্টস মালিক রুহুল আমিনকে কৃষি বিপনন আইনের ২০১৮এর ১৯/ক-১০ ধারায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও মালামাল ক্রোক করা হয়েছে। পিঁয়াজগুলো নিলামে বিক্রি করা হবে, সে পর্যন্ত এগুলো সিরাজদিখান থানার ত্বত্তাবধানে থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *