সিরাজদিখান দিনমজুরদের পাশে কেউ নেই, মানবেতর জীবন যাপন!

মোহাম্মদ রোমান হাওলাদার, সিরাজদিখান (মুন্সিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার সিরাজদিখান বাজারের ৫০ জন দিনমজুর কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন৷
এমন এক বেলা খেলে আরেক বেলা খাবার যোগানোর সাধ্য নেই তাদের। সরকারী ও স্থানীয় ভাবে মানুষজন ত্রান সামগ্রী পেলেও তাদের পাশে নেই কেউ। বর্তমান সংকটকালীন সময়ে সরকারী ত্রান দুরের কথা স্থানীয় কোন ব্যাক্তি তাদের কোন প্রকার সাহায্য সহযোগিতা করেনি।আর সে কারণে বেশীর ভাগ সময় অনাহারে দিন কাটাতে হচ্ছে তাদের। প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞার কারণে বাজারে সব দোকানপাট বন্ধ রাখা হয়েছে। এর পরও কাজ পেলে পরিবারের জন্য ডাল ভাতের যোগান দেয়া যাবে ভেবে রাস্তায় বসে থাকেন তারা। সরকারী ভাবে হতদরিদ্র ও অসহায় জনসাধারণের জন্য বরাদ্দকৃত ত্রান ইউপি সদস্য কর্তৃক বন্টনের দ্বায়ীত্ব দেয়া হলেও তারা তা পালন না করে তাদের পছন্দে ঘরে ঘরে বন্টন করেছেন বলে বেশ কয়েকজন দিনমজুর অভিযোগ তোলেন।

দিনমজুরদের সাথে কথা বলে জানা যায়,লকডাউনের আগেও যেখানে ৪শ থেকে ৫ শ টাকা প্রতিদিন থাকতো। সেখানে এখন দুই তিন দিনে ২ শ থেকে ৩শ টাকা জোটে। দিনমজুরদের তিনটি দলে প্রায় ৫০ জন সদস্য রয়েছে। তাদের মধ্যে ছোট দলে রয়েছে সরদারসহ ৮ জন। বড় দলে রয়েছে সর্দারসহ ১৫ জন ও মেঝে দলে রয়েছে ৭ জন। তবে আলুর মৌসূমে কাজের চাপ বেশী থাকায় ১২ থেকে ১৩ জন সদস্য যোগ হয়। মৌসম শেষে তারা রিক্সা ও ভ্যান চালিয়ে সংসার চালান। এখন তারাও অলস সময় পার করছেন। কেউই দিচ্ছে না তাদের ত্রাণ সামগ্রী। বিভিন্ন জায়গা থেকে হাওলাত করে কোনরকমে কাটছে তাদের দিন।
ছোট দলের সর্দার হানিফ সরকার সরদার কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আর লিখে কি হবে? বাজার লকডাউন করায় এখন আমাদের কাজ নেই। আপনি লিখলে কি আমাদের কেউ খাবার এনে দিবে? আমাদের দুঃখ কেউ বুঝবে না। কোন মতে আত্মীয়-স্বজনদের কাছ থেকে ধার নিয়ে সংসার চালাচ্ছি। সামনে কি হবে জানিনা!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *