সিরাজদিখানে করোনা সংক্রমন ঠেকাতে যুবলীগ নেতা আমিনের অক্লান্ত পরিশ্রম!

সিরাজদিখান (মুন্সিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
সম্প্রতি করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) একটি আন্তর্জাতিক ত্রাস হয়ে উঠেছে। এই ভাইরাসটি বিশ্বের অনেক দেশে হানা দিয়ে কেড়ে নিচ্ছে লাখো মানুষের প্রান। অন্যান্য দেশের মতো ধীরে ধীরে বাংলাদেশেও এর সংক্রমন বাড়তে শুরু করেছে। প্রায় প্রতিদিনই এই ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে কেউ না কেউ মারা যাচ্ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছেন, ভাইরাসটির সংক্রমন ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা একমাত্র উপায়। এটিকে প্রতিরোধের লক্ষ্যে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে দলীয় নেতা কর্মী থেকে শুরু করে দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মাঠে নেমেছে। “এদেশ আমার মা, এদেশের মানুষ আমার মায়ের সন্তান”এই চিন্তা ধারা মাথায় নিয়ে বিশেষ করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে সমন্বয় করে কাজ করে যাচ্ছে দলীয় নেতা কর্মিরা। তেমনি এক নেতা আহসানুল ইসলাম আমিন। তিনি মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার মালখানগর ইউনিয়নের ফুরশাইল গ্রামের মৃত ইয়ানুস মিয়ার পুত্র ও মালখানগর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক। ২০১৪ থেকে পরপর দুইবার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে বর্তমানে তিনি ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। দ্বায়িত্ব বোধকে কাজে লাগিয়ে বর্তমান সংকটময় মুহূর্তে প্রতিটি ঘন্টা মানুষকে করোনা থেকে রক্ষা করার মহত উদ্দেশ্য নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এই নেতা। জনসাধারণকে শতর্ক করা থেকে শুরু করে করোনা সংক্রমন থেকে নিজে এবং অন্যকে বাঁচাতে গণজামায়েত বন্ধে জোর কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। শুধু তাই নয় করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের ফলে খেটে মানুষের পাশে দাড়ানোর অংশ হিসেবে হতদরিদ্র মানুষের বাড়ী বাড়ী গিয়ে রাতের আধারে ত্রান পৌঁছে দিচ্ছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে তাকে প্রতিনিয়তই দেখা যায় করোনা সচেতনা মূলক কাজে অংশগ্রহন করতে। কখনো নিজে, আবার কখনে সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে অক্লান্ত ভাবে কাজ করছেন জনসাধারণের মধ্যে করোনা বিস্তার রোধের লক্ষ্যে। এছাড়া করোনা সংক্রমন ঠেকাতে বিভিন্ন প্রচার প্রচারণায় ব্যাস্ততার সময় পার করতেও দেখা যায় তাকে।করোনা সংক্রমনের ভয় থাকা স্বত্বেও তার এই নিরলস পরিশ্রম দেখে উপজেলা বাসী বলছেন, ঘরে ঘরে আমিন থাকলে করোনা সংক্রমন ঠেকানো সম্ভব হতো। যুবলীগ নেতা আমিনকে দেখে বর্তমানে ওই এলাকার যুবকদের মধ্যে অনেকেই করোনা সংক্রমন বিরোধী স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করতে উদ্বুদ্ধ হয়ে উপজেলা প্রশাসনের সাথে সংযুক্ত হচ্ছেন।

যুবলীগ নেতা আহসানুল ইসলাম আমিনের কাছে তার অক্লান্ত পরিশ্রমের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নির্দেশে জনগনকে সুরক্ষিত রাখতে সামাজিক সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে। দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশ অনুযায়ী নিজ অবস্থান থেকে সামাজিক সচেতনতা গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছি। ইনশাআল্লাহ আমরা এভাবে কাজ করে গেলে দেশে করোনার বিস্তার রোধ ঠেকাতে পারবো বলে আমি মনে করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *