সাতক্ষীরায় খাবার খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরা সদরের ফিংড়ি ইউনিয়নের সুলতানপুরে চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ুয়া স্কুলছাত্রীকে খাবার খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে আব্দুস ছালাম (৪৫) নামে এক ধর্ষক। এ ঘটনায় বুধবার(০১ এপ্রিল) রাতে স্কুলছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে সদর থানায় ধর্ষকের নামে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। নির্যাতিত স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।ধর্ষক আব্দুস ছালাম সদর উপজেলার ফিংড়ি ইউনয়নের জিফুলবাড়িয়া গ্রামের মৃত ছদরুদ্দীনের ছেলে।

সদর থানার মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, আব্দুস ছালাম প্রতিবেশী হওয়ায় স্কুলছাত্রীর বাড়ির উপর দিয়ে প্রায়ই যাতায়াত করতো।গত ২৯ মার্চ সকাল ১০টার দিকে স্কুলছাত্রী তাদের বাড়ির পাশে একটি বিলে গবাদী পশুর জন্য ঘাস কাটতে যায়। এ সময় পূর্ব থেকে সেখানে থাকা আব্দুস ছালাম তাকে খাবার খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি আমবাগানে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে এবং বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য তাকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে পালিয়ে যায়।

এদিকে, এ ঘটনাটি তাদের পাশে থাকা জনৈক সাগর নামের ১৩ বছরের অপর এক কিশোর দেখে ফেলে। কিন্তু সেও ভয়ে বিষয়টি কাউকে জানায়নি।ঘটনার দুই দিন পর বুধবার (০১ এপ্রিল) বিকালে কিশোর সাগর ঘটনাটি ওই স্কুল ছাত্রীর ভাইকে বিষয়টি জানায়। স্কুলছাত্রীর ভাই স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের পরামর্শে রাতেই ধর্ষক আব্দুস ছালামের বিরুদ্ধে সদর একটি থানায় মামলা দায়ের করেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, পলাতক আব্দুস সালামকে গ্রেফতার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *