শেরপুরে“সচেতন রক্তদান গ্রুপ”উদ্যেগে করোনা প্রতিরোধে ত্রাণ বিতারণ

স্টাফরিপোর্টার:
বগুড়ার শেরপুরের পল্লীতে শ্রমজীবী মানুষকে সহায়তায় অনুকরণীয় অনন্য উদ্যেগ হাতে নিয়েছে “সচেতন রক্তদান গ্রুপ” নামের একটি সেচ্ছা সেবী সংগঠন। চোখের সামনে দেখছিলেন করোনা ভাইরাসের কারণে নিজ গ্রামের প্রায় ৫শতাধিক শ্রমজীবী মানুষ বিপাকে পড়েছেন। কেউ দিনমজুর, কেউ চায়ের দোকানি, কেউবা ভ্যানচালক, খেটে খাওয়া নি¤œ আয়ের মানুষ। ওই সংগঠনটির উপলব্ধি হলো, খাদ্য সহায়তা না পেলে অসহায় মানুষগুলোর বেঁচে থাকাই কঠিন।


গ্রামের বাসিন্দারা যে যেখানে প্রতিষ্ঠিত আছেন, তাঁদের নজরে আনতে লাগলেন বিষয়টি। এরপর ওই সংগঠনটির কাছে সাহায্যে পাঠাতে লাগলেন এলাকার বাসিন্দারা । সেই সাহায্যে টাকায় কেনা খাদ্যসামগ্রী তুলে দেওয়া হচ্ছে শ্রমজীবী মানুষগুলোর হাতে।
সংগঠনটির কোষাদক্ষ ও খন্দকার টোল সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ের সহ: শিক্ষক মো: শামিম রহমানের উদ্যোগে আজ বৃহস্পতি বার ১০-নং শাহাবন্দেগী ইউনিয়নের খন্দকার টোলা প্রথমিক বিদ্যালয় মাঠে এমন ২০০ টি পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন সংগঠনটি। সহায়তার মধ্যে ছিল ৫ কেজি আটা ও ১ কেজি ডাল ।
এসময় অন্যানোর মাঝে উপস্থিত ছিলেন খন্দকার টোলা প্রথমিক বিদ্যালয়ের সহ;সভাপতি মো: হায়দার আলী খন্দকার ,সমাজ সেবক মো: নূরুজ্জামান নূরু ,তারিকুল ইসলাম ফারুক,সাফুল ইসলাম,শফিক “সচেতন রক্তদান গ্রুপ” সংগঠনটির সকল সদস্যবৃন্দ।
সংগঠনটির পক্ষ থেকে আবুল খায়ের এবং রিপন জানান ‘আমাদের এ উদ্যোগ দেশের প্রত্যেকটি গ্রামে ও মহল্লার জন্য অনুকরণীয় মডেল হতে পারে। বর্তমানে যে যার মতো করে শ্রমজীবী মানুষকে সহায়তা দিচ্ছে।সেখানে কোনো সমন্বয় নেই। এতে কেউ একাধিকবার সহায়তা পাচ্ছে, কেউ পাচ্ছে না। আমরা গ্রামের সব শ্রমজীবী মানুষের তালিকা করেছি। শ্রমজীবী মানুষের এর মধ্যে আমরা প্রথমিক ভাবে আমরা ২০০ জনকে দিয়েছি বাকি দেরকেও দিব। সংগঠনটির উপলব্ধি, দেশের প্রায় প্রতিটি গ্রমে ও মহল্লাতেই এই রকম অনেক সেচ্ছা সেবী সংগঠন আছেন। তাঁরা এভাবে উদ্যোগ নিলে, সেই গ্রামের বাসিন্দা যারা দেশে-বিদেশে বিভিন্ন জায়গায় প্রতিষ্ঠিত আছেন সবাই এগিয়ে আসবেন। ফলে, চরম এই দুর্দিনের সময়ে নিজ গ্রামের অসহায় মানুষগুলো রক্ষা পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *