বগুড়ায় করোনা আতংকে নিত্যপ্রয়োজনিয় দ্রব্য মূল্যর দাম বৃদ্ধি বাজার মনিটরিং কাজে আসছেনা

বগুড়া প্রতিনিধি।।
বগুড়ায় এবার কোরোনা ভাইরাসকে উপলক্ষ করে বাজারে লাগামহীন ভাবে বাড়ছে দ্রব্য মূল্যর দাম । মাত্র দুই দিনের ব্যবধানে চাল খাবার তেল সহ বাড়ছে ভগ্যপন্যর দাম। বাজার স্থিতিশীল রাখতে বগুড়ার জেলা প্রশাসক মুহাঃ ফয়েজ আহম্মেদ এর নের্তৃতে মনিটরিং টিম ভগ্যপন্য বাজার মনিটরিং করলেও তা কোন কাজে আসছেনা ।
১৯ মার্চ (বৃহস্পতিবার ) বেলা ১২ টায় মনিটরিং টিম স্থানীয় ফতেহআলী বাজারে দ্রব্য মূল্য স্থিতিশীল রাখতে ডিসি’র নের্তৃতে বাজার মনিটরিং শুরু করা হলেও , টিম ঘটনা স্থল থেকে চলে যাবার পর থেকে আবারো বর্ধিত মূল্যয় বেচাকিনি শুরু হয়। মনিটরিং টিমে ডিসির সাথে ছিলেন বগুড়া জেলার সিভিল সার্জন মুহাঃ গাওসুল আজিম, বগুড়া চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সহ সভাপতি মাহফুজুল হক রাজ প্রমুখ।
জেলা প্রশাসক মুহা ঃ ফয়েজ আহম্মেদ এ সময় ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় করেন এবং বাজারে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করেন। তিনি এসময় দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল রাখার জন্য ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করেন। সেই সাথে জনসাধারণকে প্রয়োজনের অতিরিক্ত দ্রব্য না কেনার জন্য পরামর্শ দেন।
এদিকে সরেজমিনে স্থানীয় বাজার ঘুড়ে দেখা যায় নিত্যপন্য দ্রুব্যমূল ক্ষেত্রে চাল,ডাল, আলু, পিঁয়াজ, সয়াবিন তেল সহ প্রায় সকল পন্যর দাম গত দুই দিনে বেড়েছে থেকে ১০টাকা পর্যন্ত । করোনা ভাইরাস আতঙ্কে স্থানীয় বাজার গুলোতে লোকজনের ভীর ছিল অস্বাভাবিক ।অনেককেই এসময় অতিরিক্ত চাল, ডাল, পেয়াজ, আলু স্বাভাবিকের চেয়ে বেশী বেশী ক্রয় করতে দেখা যায় । অনুমান করা হচ্ছে একারণে হঠাৎ করে খুচরা বাজারে চাল তেল পিয়াঁজ ,ডাল সহ বিভিন্ন শব্জির দাম কেজি প্রতি বেড়েছে ৫থেকে ১০ টাকা করে ।
খোঁজ খবর করে জানা গেছে , সব ধরনের চালের দাম ৫ থেকে থেকে ৭টাকা বাড়লেও আবারো বেড়েছে পিয়াঁজের দাম। মাত্র দু’দিনের ব্যবধানে দেশীয় পেয়াজের দাম কেজি প্রতি ১০ থেকে ১৫ টাকা বাড়ানো হয়েছে।স্থানীয় বাজারে টিসিবির বড় সাইজের পিঁয়াজ মিলছে।
গত মঙ্গলবার শহরের পাইকারী বাজার হিসাবে পরিচিত রাজাবাজারে পেয়াজেঁর পাইকারী মূল্যকেজি প্রতি ৩০ থেকে ৪০টাকা বিক্রি হলেও তা বৃহস্পতিবার বিক্রি হয়েছে (ভাল)৫০থেকে ৫২টাকা পাইকারী দামে। বিভিন্ন কোম্পানীর খাবার তেলের কন্টিনার প্রতি দাম বেড়েছে ৮থেকে ১২টাকা করে । স্থানীয় খুঁচরা বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে পাইকারী মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় তারাও বাধ্য হয়ে মূল্য বৃদ্ধি করেছেন।
এদিকে বগুড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সুত্রে বলা হয়েছে,নিত্য প্রয়োজনিয় দ্রব্যমুল্য স্থিতিশীল রাখতে বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকে শহরের ফতেহ আলী, মালতিনগর বকশী বাজার,রাজা বাজার সহ স্থানীয় বাজার গুলোতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান শুরু করা হচ্ছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *