সুন্দরগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৫ জন

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ১৫ জন বিদেশ ফেরত ব্যক্তি হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।
বুধবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ সম্মেলণ কক্ষে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী লুতফুল হাসান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডা. আশরাফুজ্জামান সরকার ও থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহিল জামান সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বর্তমান বিশ্বে করোনা ভাইরাস নিয়ে মারাত্বকভাবে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ থেকে পরিত্রাণের অন্যতম উপায় হল সচেতনতা। এজন্য ইতোমধ্যে উপজেলা পর্যায়ে ৯ সদস্য বিশিষ্ট্য একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া, সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন, পৌরসভা, ওয়ার্ড পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি, সুশিল সমাজের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকসহ সকলকেই সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে এ বিষয়ে সচেতনতা মূলক কার্যক্রম চালিয়ে যেতে আহ্বান জানান। এ সময় উল্লেখ করা হয় স্বদেশে ফেরৎ ব্যক্তিদের মধ্যে এ উপজেলায় এ পর্যন্ত ১৫ জনের নাম আমরা পেয়েছি। তারা সকলেই হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এরা হলেন- সুন্দরগঞ্জ পৌরশহরের তাঁতীপাড়াস্থা বিয়ন কৃষ্ণ বসুনিয়া, তার স্ত্রী রীথি রাণী মন্ডল, জরমনদী গ্রামের মৃত আজিজুল হকে পুত্র হুমায়ুন আহমেদ, মনিরাম ফলগাছা গ্রামের বাদশা মিয়ার পুত্র লিমন মিয়া, তালুক সর্বানন্দ গ্রামের সামছুল হকের পুত্র আঃ সালাম, রামজীবন গ্রামের পিয়ারু শেখের পুত্র আফজাল হোসেন, চাচীয়া মীরগঞ্জ গ্রামের কায়ছার আলীর পুত্র সেরাফ সরকার, পরাণ গ্রামের আঃ মজিদের পুত্র সাজু মিয়া, শান্তিরাম ইউনিয়নের মৃত আঃ কাদের চেয়ারম্যানের পুত্র কিবরিয়া বাবু, শফিউল ইসলামের পুত্র আলামিন, খয়বর হোসেনের পুত্র মোস্তা মিয়া, ঝিনিয়া গ্রামের লুৎফর হাজীর পুত্র আশা মিয়া, রামডাকুয়া মহল্লার জনৈক কার্তিক চন্দ্র বসুনিয়ার নাম এ পর্যন্ত জানতে পেয়েছি। অন্যান্যদের পরিচয় জানতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। সময় বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বিদেশ ফেরৎ ব্যক্তির সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে পারে। হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানে করনো ভাইরাসে আক্রান্ত নয়। এটা নিবিড় পর্যবেক্ষণের ব্যাপার। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা জানান, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে ব্যাপক প্রচার প্রচারনা চালানো অব্যাহত রয়েছে। সংবাদ সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ও থানা অফিসার ইনচার্জ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *