সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে হত্যা দায়ে স্বামীর মৃত্যু দন্ড

স্টাফরিপোর্টার:
সিরাজগঞ্জের উল্লাপাডায় যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় স্বামী সনাতন চন্দ্র ভৌমিককে মৃত্যু দন্ড দিয়েছে আদালত। সেই সাথে আদালত তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা ধার্য করেছে। সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ফজলে খোদা মো. নাজির গতকাল বুধবার দুপুরে এ রায় ঘোষনা করেন। সনাতন চন্দ্র ভৌমিক উপজেলার বোয়ালিয়া মালিপাড়া গ্রামের বৈদ্যচন্দ্র ভৌমিকের ছেলে।
আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের পিপি আব্দুল হামিদ লাবলু জানান, ১৯৮৭ সালে কামারখন্দ উপজেলার হরিপদর মেয়ে স্বপ্না রানীর সঙ্গে বিয়ে হয় সনাতন চন্দ্র ভৌমিকের। সে সময় ১ লাখ টাকা যৌতুক হিসাবে দেবার কথা ঠিক করে বিয়ে হয় তাদের। তখন যৌতুকের ১ লাখ টাকার মধ্যে তাকে ৬০ হাজার টাকা দেয়া হয়। সনাতন চন্দ্র বাকি যৌতুকের টাকার জন্য বিভিন্ন সময় স্ত্রীকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন। এরই এক পর্যায়ে ২০০১ সালের ২ আগস্ট রাতে স্ত্রী স্বপ্না রানীকে প্রথমে মারপিট করে ও এক পর্যায়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। হত্যার ঘটনায় নিহতের মা রাজু বালা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলায় বাদীপক্ষের ১০ জন স্বাক্ষী গ্রহন করা হয়। এ মামলার পর থেকেই সনাতন চন্দ্র সপরিবারে পলাতক রয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আদালতে আসামীর অনুপস্থিতিতে বিচারক রায় ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *