সিরাজগঞ্জে এক রাতে ০২স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ; বর ও কনের পিতার অর্থদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টারঃ
সিরাজগঞ্জ সদরের একই রাতে ০২(দুই) স্কুল ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা করেছেন সিরাজগঞ্জ সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান।

প্রথমে রাত ৯.৩০ টায় সিরাজগঞ্জ সদরের ছোনগাছা ইউনিয়নের ডিগ্রির পাড়া গ্রামে নবম শ্রেণীর ছাত্রী (১৫) ও গভীর রাতে বাগবাটি ইউনিয়নের কোনারগাতী গ্রামে সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী (১৩) এর বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। আদালত

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বাল্যবিবাহ গুলো বন্ধ করা হয়। এসময় প্রথমে ভ্রাম্যমাণ আদালত ডিগ্রির পাড়া গ্রামে সংগীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়ে অভিযান চালান। তখন কনের বাড়ীতে কনে ছোনগাছা ইউনিয়নের ডিগ্রির পাড়া গ্রামের নবম শ্রেনীর ছাত্রী (১৫) এর সাথে মাছুয়াকান্দি গ্রামের দিন মজুর (২২) এর বিয়ের আয়োজন চলছিল। কনে অপ্রাপ্তবয়স্ক। পরে বাল্যবিবাহ বন্ধ করে কনের পিতাকে ৫হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। কনের পিতার কাছ থেকে কনে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না বলে মুচলেকা নেয়া হয়।

এরপর ২য় ধাপে ভ্রাম্যমাণ আদালত গভীর রাতে বাগবাটি ইউনিয়নের কোনারগাতী গ্রামে অভিযান চালায়। তখন কনের বাড়ীতে কনে কোনারগাতী গ্রামের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী (১৩) এর সাথে একই উপজেলার শিয়ালকোল ইউনিয়নের ফুলবাড়ী গ্রামের কিশোর (১৭) এর সাথে বিয়ের আয়োজন চলছিল। বর ও কনে উভয়ই অপ্রাপ্তবয়স্ক ও কনে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী।পরে আদালত বাল্যবিবাহ বন্ধ করে বরের পিতাকে৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। বরের পিতা ও কনের পিতার কাছ থেকে বর ও কনে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না বলে মুচলেকা নেয়া হয়।

বাল্যবিবাহগুলো বন্ধে উপস্থিত ছিলেন পৌর ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম ও আনসার ব্যাটালিয়নের সদস্যবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *