শেরপুরে দখল মুক্ত হলপ্রাথমিক বিদ্যালয়েরস্কুল মাঠ

স্টাফ রিপোর্টার ঃ বগুড়ার শেরপুর উপজেলার বিনোদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্কুল মাঠ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিয়াকত আলী সেখের হস্তক্ষেপে দখল মুক্ত হয়েছে। এবং স্কুল মাঠে ঝুলানো হয়েছে দখল মুক্ত সাইনবোর্ড। গতকাল বৃহস্পতিবার বিনোদপুর হাট লাগলেও মাঠের ভিতরে বসানো হয়নি দোনকাপাট ও রাখা হয়নি বাঁশ।
জানাযায়, দীর্ঘদিন ধরে লাগানো হয় বিনোদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্কুল মাঠে হাট। শুরুতে স্কুল মাঠে হাটের দিন ছাড়া অন্য কোন দিন রাখা হয়নি বাঁশ ও কাঠের চকি সহ আসবাব পত্র। কিন্তু কয়েক বছর ধরে স্কুল মাঠে সপ্তাহে ৬দিন ২৪ ঘন্টায় রাখা হয় বাঁশ ও কাঠের চকি সহ আসবাব পত্র। এতে শিক্ষার্থীরা স্কুলে এসে খেলার মাঠ বাঁশ ও কাঠের চকির দখলে থাকায় বিনোদন থেকে বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা। আর এরই ভিতরে খেলতে গিয়ে ৩ বছর পুর্বে এক স্কুল ছাত্রের পায়ের ভিতরে বাশের আগা ডুকে গুরুতর আহত হয়। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ২২ ফেব্রুয়ারি শনিবার স্কুল টিফিনের সময় খেলতে গিয়ে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী সাদিয়া খাতুন (১১) পা-ভেঙ্গে গুরুতর আহত। আহত সাদিয়া খাতুন বিনোদপুর গ্রামের দিনমুজুর নইমুদ্দিনের মেয়ে। এ ঘটনায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত “বিনোদপুর সরকারি প্রাথমি বিদ্যালয় মাঠে হাট ॥ শিক্ষার্থী গুরুতর আহত” শিরোনামে প্রকাশিত হওয়ার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিয়াকত আলী সেখ স্কুল মাঠে হাট বন্ধ করে মাঠটি দখল মুক্ত রাখতে মাইকিং করেন। এবং স্কুল মাঠে ঝুলানো হয়েছে দখল মুক্ত সাইনবোর্ড।
এ ব্যাপারে শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিয়াকত আলী বলেন, এটা মুজিব বর্ষ আর এখন থেকে কোন প্রকার অবৈধ কাজ করতে দেওয়া হবেনা। স্কুল মাঠে হাট বসানো এটা অবৈধ কাজ। তাই শিক্ষার্থীদের বিনোদনের মাধ্যমে জ্ঞানের বিকাশ ঘটাতে পারে সে জন্য স্কুল মাঠ থেকে হাট তুলে দিয়ে দখল মুক্ত করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *