ব্যাস্ত সময় পার করছে পঞ্চগড়ের ফুল চাষি ও বিক্রেতারা

আব্দুর রউফ,পঞ্চগড় প্রতিনিধি :
“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গনো একুশে ফেব্রুয়ারি-আমি কি ভুলিতে পারি” এই মাস বাঙ্গালি জাতির গর্বের ও ভাষার মাস। আর এ গর্বের মাসের ৩ দিবসকে ঘিরে পুরো দমে ব্যাস্ত সময় পার করছে দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের ফুলচাষি ও বিক্রেতারা। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি একই দিন পহেলা ফাল্গুন এদিকে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস হওয়ার পাশাপাশি ২১শে ফেব্রুয়ারি জাতীয় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাগান পরিচর্যার পাশাপাশি পুরোদমে ব্যাস্ত সময় পার করছেন ফুলচাষিরা। সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে এবার ভিন্ন চিত্র। পঞ্চগড় জেলায় স্থানীয় ভাবে ফুল চাষ হওয়ায় এবং ফুলের বাম্পার ফলনে লাভের আশা করছেন ফুলচাষি ও ব্যবসায়ীরা। সাধারণত ফেব্রুয়ারি মাসে বাজারে বিভিন্ন ধরনের ফুলের চাহিদা থাকলেও এবার নিজেদের ফুল দিয়ে সাজিয়ে তুলেছেন নিজ নিজ ফুলের দোকান। পঞ্চগড়ের ফুল এলাকার চাহিদা মিটিয়ে বাইরেও বিক্রি করছেন ফুলচাষিরা। স্থানীয় ফুলচাষি ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ‘ফেব্রুয়ারি’ মাসে ৩ দিবসকে ঘিরে ফুলের চাহিদা ব্যাপক থাকায় মাসটির শুরু থেকেই ব্যাস্ততায় থাকছেন তারা। একই দিনে পহেলা ফাল্গুন ও ভালোবাসা দিবস সহ আগামী ২১ ফেব্রুয়ারিকে ঘিরে ফুলের চাহিদা অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে বলে জানান ফুলচাষি ও ব্যাবসায়িরা। ফুলচাষি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ফেব্রুয়ারি মাসে গোলাপ, গ্যাডিওলাস, গাঁদাসহ বিভিন্ন জাতের ফুলের অনেক চাহিদা বেড়ে যায়। তাই আমি এবার ফুল চাষ করেছি। আশা করি ফুল বিক্রি করে কিছুটা ভালো আয় করতে পারবো। ফুল বিক্রেতা লিমা বলেন, বিভিন্ন দিবস ছাড়া তেমন ফুলের চাহিদা থাকে না। আশা করছি এই তিনটি দিবসে ফুল বিক্রি করে ভালো আয় করা যাবে। এদিকে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) একই দিন পহেলা ফাল্গুন ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। অন্যদিকে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হওয়ায় ৩ দিবসকে ঘিরে ফুল বিক্রি করে ভালো আয়ের স্বপ্ন দেখছেন ফুলচাষিসহ বিক্রেতারা।
পঞ্চগড় জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালাক আবু হানিফ বলেন, পঞ্চগড় জেলায় তেমন ভাবে ফুল চাষ হয়নি। এবার বিভিন্ন ফসলের পাশাপাশি ফুলের চাষ ভালই হয়েছে। আমরা চাষিদের পরামর্শ ও সহযোগীতা দিয়ে আসছি। আশা করছি আগামীতে পঞ্চগড়ে ফুলচাষ আরো বৃদ্ধি পাবে বলেও জানান এ কৃষি কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *