বগুড়ায় ছেলেকে রক্ষাকরতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে মা ছেলে নিহত ।।

কাহালু ও বগুড়া প্রতিনিধি।।
বগুড়ায় ভারসাম্যহীন ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে ট্রেনের নিচে পরে কাটা পরে মা ও ছেলে নিহত হয়েছেন। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপুরে বগুড়ার কাহালু রেল ষ্টেশন এলাকায় ।
নিহত মৃত ফেলানী বেগম (৫০) কাহালু পৌর এলাকার সাগাটিয়া গ্রামের হারেজ উদ্দিনের স্ত্রী এবং তার ছেলে রাজ বাবু (২৬)।
রেলওয়ে পুলিশ (জিআরপি ) ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সোমবার বেলা আনুমানিক বেলা পোনে ২টার দিকে লালমনিহাট থেকে ঢাকাগামী লালমনি এক্সপ্রেস-৭৫২ কাহালু স্টেশনের বাইবাস ক্রসিং এর কিছু আগে রেল লাইনের পাশে ভাতের দেকানী ফেলানী বেগম তার মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলে রাজ বাবুকে রেললাইন পার হতে থাকে। ছেলে রাজ কে লাইনের উপর দেখার পর তার মা ফেলানী চিৎকার করতে করতে দ্রুত লাইনের দিকে দৌড়ে যায় এমত্ববস্থায় দ্রুতগামী ট্রেনটি সেখানে পৌছে গেলে ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে মা ও ছেলে ঘটনাস্থলেই মারা যায় । এসময় তাদের লাশটি ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় ।

ঘটনার পর খবর পেয়ে বগুড়া রেলওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে কাহালু থানা পুলিশের সহযোগীতায় লাশ দুটি ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয় ।
বগুড়া রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ী ইনচার্জ এসআই মোঃ ফিরোজ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লাশ দুটি ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান , ফেলানী গাইবান্ধা জেলার সাগাটিয়া গ্রামের বাসিন্দা, সে দীর্ঘদীন যাবৎ কাহালু রেলওয়ে বটতলা এলাকায় ভ্রাম্যমান বুট-বাদাম সহ বিভিন্ন খাবারের দোকান দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। প্রতিদিনের ন্যায় দুপুরে দোকান সাজানোর সময় তার মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলে রাজ বাবুকে রেল লাইনের উপর দেখাতে পেয়ে তাকে রক্ষায় দৌড়ে যান সেখানে । ছেলেকে রক্ষা করতে গিয়ে মা ছেলে দুজনেই ট্রেনে কাটা পরে মারা যায়।ঘটনার পর গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে । এসময় শত শত লোক ভীর করে সেখানে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *