বগুড়ার শেরপুরে দাদন ব্যবসায়ীর মারপিটে স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু

স্টাফরিপোর্টার: বগুড়ার শেরপুরে দাদন ব্যবসায়ীদের মারপিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাইফুল ইসলাম (৫০) নামের এক স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। সে নন্দীগ্রাম উপজেলার প্রেম হাজারকি হুশিয়ারপাড়া গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে এবং পার্শ্ববর্তী দোয়ালসাড়া সরকারি প্রাাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক।
স্থানীয়রা জানায়, ১৯ জানুয়ারী রবিবার সন্ধ্যার পর সাইফুল ইসলাম বাড়ি না ফেরায় পরিবারের লোকজন খোঁজ খবর করতে থাকে। একপর্যায় তার কর্মস্থল দোয়ালসাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বারান্দায় হাত-পা বাধা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে, স্থানীয় লোকজনদের সহযোগীতায় তাকে উদ্ধার করে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে ২২ জানুয়ারী বুধবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সাইফুল ইসলামের ছেলে শুভ এলাকার একাধিক দাদন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে কয়েকলক্ষ লাখ টাকা দাদনে নিয়ে পরিশোধ করতে পারছিল না। নিহত সাইফুল ইসলাম তার বেতনের চেক বই দাদন ব্যবসায়ীদের কাছে জামানত হিসাবে জমা দেন। একপর্যায়ে দাদন ব্যবসায়ীরা সাইফুল ইসলামকে সুদের টাকা পরিশোধ ও মূল টাকা আদায়ের জন্য চাপ দিয়ে আসছিল। এঘটনায় পরিবারের লোকজন দাদন ব্যবসায়ীরাই সাইফুল ইসলামকে মারপিট করে হাত-পা বেধে স্কুলের বারান্দায় ফেলে রেখে যায় বলে দাবি করেন।
এব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ন কবীর বলেন, সাইফুল ইসলাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন, তবে কি ভাবে মারা গেছেন বা মারপিটের কোন ঘটনার অভিযোগ পাওয়া যায়নি, অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *