বগুড়ার গাবতলীতে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণকে কেন্দ্র করে ইউপি সচিবের কক্ষে ভাংচুর তান্ডব চলালো ইউপি সদস্যরা

বগুড়া প্রতিনিধি।।
বগুড়া গাবতলীর নশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব কক্ষের চেয়ার টেবিল ভাংচুর ও বিভিন্ন ফাইলপত্র তছনছ করেছে কতিপয় ইউপি সদস্যরা। শীতার্তদের মাঝে সরকারী কম্বল বিতরণকে কেন্দ্র করে ২৪ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ইউনিয়ন পরিষদে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় ইউপি সচিব জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।
জানা গেছে, বর্তমান সরকার প্রদত্ত কম্বল বিতরণের জন্য ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যরা মিলে দুস্থ শীতার্তদের চিহিৃত করে তালিকা করেন। তালিকা অনুযায়ী গ্রাম পুলিশকে দিয়ে তালিকাকৃত দুস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণের জন্য স্লিপের মাধ্যমে খবর পাঠানো হয়। সে মোতাবেক ওই ইউনিয়নের শীতার্তরা কম্বল নেয়ার জন্য গতকাল পরিষদ চত্তরে আসেন।
প্রত্যক্ষদশীরা জানান, এসময় সেখানে ইউপি সদস্য আমিনুল ইসলাম ,নজরুল ইসলাম, জোনাব আলী, ও মোছাঃ শাপলা খাতুন সচিবের কক্ষে ডুকে সচিবের কাছে কম্বল বিতরণের মাষ্টার রোলে তাদের পাওনা ১৫জনের নামের তালিকা দেখতে চায়।
মাষ্টার রোলে তাদের দেয়া নাম ঠিকঠাক থাকলেও মাষ্টার রোল হাতে নিয়ে চেয়ারম্যানকে গালাগালি শুরু করেস তারা । কারণ তাদের মাধ্যমে স্লিপ বিতরণ না করে গ্রাম পুলিশদের দিয়ে স্লিপ দেয়া হয়েছে বলে। একপর্যায়ে সচিবের উপর চড়াও হয়ে ওঠে ওই মেম্বাররগন সেখানে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে । এসময় তারা অফিসের চেয়ার-টেবিল ভাংচুর শুরু করে এবং অফিসিয়াল বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে তছনছ করে ফেলে।
যাওয়া পথে তারা চেয়ারম্যানকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়। এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মিন্টু বলেন, গ্রাম পুলিশদের মাধ্যমে কম্বলের স্লিপ বিতরণ করায় ওই ইউপি সদস্যরা সচিব কক্ষের চেয়ার টেবিল ভাংচুর ও বিভিন্ন ফাইলপত্র তছনছ করেছে। এ ব্যাপারে ইউএনও মোছাঃ রওনক জাহান বলেন, বিষয়টি ইউপি সচিব জাহাঙ্গীর আলম মোবাইল ফোনে আমাকে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *