নির্বাচনী আমেজে ভাটা, প্রচারণায় ব্যস্ততা বেড়েছে ইউপি সদস্য প্রার্থীদের! 

সিরাজদিখান (মুন্সিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সামনে রেখে মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় চলমান নির্বাচনী আমেজের কিছুটা ভাটা পরেছে। ইউপি নির্বাচন কিছুটা পিছিয়ে যাওয়ায় চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশীদের পাশাপাশি ইউপি সদস্য পদ প্রার্থীরাও প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন অনেকটাই ধীরগতিতে।
উপজেলা ২-১ টি ইউনিয়ন ছাড়া প্রায় সবকটি ইউনিয়নেই এমন দৃশ্য লক্ষ্য করা যাচ্ছে। উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের তেমন ভাবে প্রচারণা চালাতে দেখা না গেলেও একই ইউনিয়নের দক্ষিন কুসুমপুর ৩ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য পদ প্রার্থী ক্বারী এস,এম আতাউল্লাহ অনেকটা জোড়ালো ভাবেই মাঠে নেমেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় কুসুমপুর আজিজিয়া মাখজানুল  উলুম মাদরাসার প্রিন্সিপাল ইউপি সদস্য পদ প্রার্থী ক্বারী এস,এম আতাউল্লাহ তার ওয়ার্ডে ব্যপক নির্বাচনি প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন।
চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও চলছে তার নির্বাচনি প্রচারণা। প্রার্থী ক্বারী এস,এম আতাউল্লাহ তার এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজের জন্য জনসাধারণের কাছে জণপ্রিয় হওয়ার সুবাদে এলাকাবাসী তাকে ইউপি সদস্য হিসেবে দাড় করিয়েছেন। এছাড়া ওই ওয়ার্ডের শিংহভাগ মানুষ প্রার্থী  ক্বারী এস,এম আতাউল্লাহকে  ইউপি সদস্য হিসেবে পাওয়ার আশা ব্যক্ত করেন। অন্যদিকে স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায় প্রার্থী ক্বারী এস,এম আতাউল্লাহ একজন আলেম এবং একটি মাদরাসার প্রিন্সিপাল হওয়ার সুবাদে এলাকাবাসী তার পক্ষ থেকে প্রচারণা চালাচ্ছেন।
এছাড়া অন্যান্য প্রার্থীদের চেয়ে প্রচার প্রচারণাসহ জণসেবামূলক কর্মকান্ডেও তিনি বেশ এগিয়ে রয়েছেন। কথপোকথনে ক্বারী এস,এম আতাউল্লাহ বলেন, আসলে আমার মেম্বার হওয়ার কোন আশা নেই। এলাকাবাসীর অনুরোধে প্রার্থী হওয়া। জণগন আমাকে অনুরোধ করে প্রার্থী বানিয়েছেন তাই আমার হার জিতে তাদেরই সম্মান অসম্মান জড়িত। আমাকে যদি জণগন দায়ীত্ব দেন তাহলে আমি আমার দায়ীত্ব পালনে শতভাগ কাজ করে যাবো ইনশাআল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *