বিএনপি-জামাতের সময় রেল ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে -ঠাকুরগাঁওয়ে রেলপথ মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সূজন।

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : নূরুল ইসলাম সুজন বলেন বিএনপি-জামায়াত জোট যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন রেলওয়ের হাজার হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারীকে ছাঁটাই করে রেলওয়ে ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছিল। আর বতর্মান সরকারের আমলে রেলওয়ের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে ঠাকুরগাঁও রোড রেলস্টেশনের উঁচু ও বর্ধিত প্ল্যাটফরমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ২০১১ সালে বর্তমান সরকার রেলওয়েকে আলাদা মন্ত্রণালয়ে রুপান্তর করে রেলের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করেছে, রেল এখন ঘুরে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন মুজিব শতবর্ষে পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁওসহ ৫০টি ষ্টেশনের অবকাঠানো উন্নয়নের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু সেতুতে ডাবল রেল লাইন চালু হবে। নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে রেল চলাচল করবে বলে জানান তিনি। ৫-৬ ঘন্টায় ঠাকুরগাঁও থেকে ঢাকায় যাওয়া যাবে। ষ্টেশন প্লাটফরমের দৈঘ্য ৮’শ ৯০ ফুট হতে ১হাজার ৬’শ ৮০ ফুটে উন্নিত করা হয়েছে। দুটি প্লাটফরমের সংযোগ স্থাপনের জন্য একটি ফুট ওভার বীজ নির্মাণকাজের টেন্ডার প্রক্রিয়াধীন আছে বলে জানান মন্ত্রী।

নূরুল ইসলাম সূজন বলেন, প্রতিটি জেলাকে রেলওয়ের সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। আগামীতে পঞ্চগড় থেকে রেলের মাধ্যমে ভারতের শিলিগুড়ি পর্যন্ত যাওয়া যাবে। সরকার এখন রেলওয়ের বেহাত হয়ে যাওয়া সম্পদ উদ্ধার করছে। রেলওয়ের কোনো জায়গা বেহাত হতে দেয়া যাবে না বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রেল পথ মন্ত্রনালয়ের সচিব সেলিম রেজা, রেলওয়ের মহাপরিচালক ডিএন মজুমদার, জেলা প্রশাসক কামরুজ্জামান সেলিম, পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুহা. সাদেক কুরাইশী, নবনির্বাচিত পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা বন্যা, উপজেলা চেয়ারম্যান অররুনাংশু দত্ত টিটো, জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নাজমুল হুদা এ্যাপোলোসহ রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *