বগুড়ার শেরপুরে প্রাক্তন স্বামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার : বগুড়ার শেরপুরে দ্বিতীয়বারের মতো বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ এনে সাবেক শিক্ষক স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক নারী।
জানা যায়, বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বগুড়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে উপজেলার সীমাবাড়ী ইউনিয়নের ধুনকুন্ডি গ্রামের হাবিবর রহমানের মেয়ে বাদি হয়ে এই মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলায় তাঁর সাবেক স্বামী শহরের শেরউড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের ধর্মীয় শিক্ষক আরিফুল ইসলামকে (৩১) আসামি করা হয়। তিনি উপজেলার সীমাবাড়ী ইউনিয়নের চান্দাইকোনা আটমিনসা গ্রামের আবুল হোসেন ছেলে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, বিগত ২০১০সালে ওই শিক্ষক স্বামীর সঙ্গে বিয়ে হয় তার। তাদের সাত বছরের সংসার জীবনে একটি ছেলে সন্তানেরও জন্ম হয়। একপর্যায়ে চার বছর আগে পারিবারিক কলহের জের তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। তবে একমাত্র ছেলে সামিউল ইসলাম শেরউড স্কুল এন্ড কলেজে ভর্তি হওয়ার পর তাদের মধ্যে নতুন করে সম্পর্ক তৈরী হয়।
একপর্যায়ে একই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ধর্মীয় শিক্ষক আরিফুল ইসলাম দ্বিতীয়বারের মতো বিয়ের প্রস্তাবও দেন তাকে। এমনকি এই প্রস্তাব নিয়ে সাবেক স্ত্রীর বাবার বাড়িতে যান আরিফুল। এসময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগ নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা তাকে। এরপর থেকে একাধিকবার তার সঙ্গে শারিরীক সম্পর্কে গড়লেও শিক্ষক আরিফুল ইসলাম তাকে বিয়ে করতে তালবাহানা করছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।বুধবার ১৭ফেবরুয়ারি সন্ধ্যায় এই তথ্য নিশ্চিত করে মামলার বাদি ওই নারী বলেন, প্রতারণার শিকার তিনি। তাই ন্যায় বিচার পেতে আদালতের আশ্রয় নিয়েছি।
ধর্মীয় লেবাসের আঁড়ালে এই অপকর্মের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত শিক্ষক আরিফুল ইসলাম বলেন, সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্যই ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলা করা হয়েছে বলে শুনেছি। কিন্তু এসব করে কোনো লাভ হবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *