সিরাজদিখানে তৃনমূল নেতাকর্মীদের সাথে চেয়ারম্যান প্রার্থী ইকবাল হোসেন চোকদারের মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

সিরাজদিখান (মুন্সিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ  মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যৌথ আয়োজনে রশুনিয়া ইউনিয়নের তৃণমূল নেতাকর্মী দের সাথে চেয়ারম্যান প্রার্থী ইকবাল চোকদারের নির্বাচনি মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় উপজেলা মোড় সংরগ্ন রশুনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের স্থায়ী কার্যালয়ে রশুনিয়া ৬ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি মোঃ জয়নাল হাওলাদারের সভাপতিত্বে ও উপজেলা তাঁতিলীগের সভাপতি মোঃ রাসেল শেখের সঞ্চালনায় মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বর্তমান চেয়ারম্যান ও চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী ইকবাল হোসেন চোকদার। মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন রশুনিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড সভাপতি মোঃ দৌলত বেপারী, ২ নং ওয়ার্ড সভাপতি আঃ কাদির অপু, ৩ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি শেখ নাজির, ৭ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি তপন ঘোষ, ৮ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম চোকদার,
৯ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি হালিম শেখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন, রশুনিয়া ১ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ মাসুম, ২ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ কাজল খান, ৩ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মনির শেখ, ৪ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারন সম্পাদক রিপন শেখ, ৫ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আক্তার হোসেন ৬ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারন সম্পাদক সালাহ উদ্দিন, ৭ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারন সম্পাদক রমজান শেখ বাবু, ৮ নং ওয়ার্ড আ.লীগের  সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন চোকদার, ৯ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ সুমন শেখ।
এছাড়া অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদের সদস্য হোসনেআরা বেগম, সিরাজদিখান উপজেলা আ.লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক ঢালী মোহাম্মদ শহীদ, বীর মুক্তি যোদ্ধা এবাদুল হক বাদল, মাহফুজ শিকদার, তাঁতী লীগের সিরাজদিখান উপজেলার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শেখ মোঃ ইয়িছিন, সিনিয়র সহ সভাপতি নাদিম হায়দার সেন্টু, রশুনিয়া ইউনিয়ন তাঁতী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মৃধা মোঃ নাসির উদ্দিন সহ রশুনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী অঙ্গ সংগঠন ও তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, গত ইউপি নির্বাচনে দেশরত্ন জণনেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দলীয় মনোনয়ন  দিয়েছিলেন।
আমি দলীয় মনোনয়ন তথা নৌকা নিয়ে রশুনিয়া ইউনিয়নের তৃণমূলের ভোটে জয়যুক্ত হই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্বাধীনতার প্রতিক যে নৌকা আমার হাতে তুলে দিয়েছিলেন সেই নৌকার চেয়ারম্যান হয়ে বিগত পাঁচ বছরে আমার দৃঢ় বিশ্বাস কোন মানুষের ক্ষতি হয় নাই বরং উপকারই সাধিত হয়েছে। শেখ হাসি না আমাকে যে নৌকা দিয়েছিলেন সেই নৌকা অক্ষত রেখে এখনো আমি চেয়ারম্যান হিসেবে জনসাধারণের সেবা করে চলেছি। আমার বিশ্বাস জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বাসের দেওয়া নৌকা আগামী নির্বাচনেও আমার হাতে আমার নেত্রী তুলে দিবেন। নেত্রী যদি আমাকে নৌকা দেন তাহলে আমি নৌকার প্রার্থী হবো এছাড়া অন্য কোন প্রার্থী হবো না। আর যদি নেত্রী আমাকে নৌকা না দেন তাহলে দলের সম্মানে আমি নির্বাচন থেকে সরে দাড়াবো এবং যাকে নৌকা দিবেন আমি তার পক্ষেই কাজ করে যাবো। দেশ নেত্রী শেখ হাসিনা তৃণমূলকে মূল্যায়ন করেন এবং রশুনিয়া ইউনিয়নের তৃণমূল আমাকে মূল্যায়ন করে। রশুনিয়া ইউনিয়নের তৃনমূল আমার সাথে ছিলো এবং আগামীতেও আমার সাথে থাকবে ইনশাআল্লাহ। তাই আমি আশাবাদী নৌকা প্রতিক পাবো ইনশাআল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *