১২০ বিঘা ধানের জমিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি

আবু বকর সিদ্দিক, শেরপুর (বগুড়া) থেকে: পাখির চোখে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষ্যে বগুড়ার শেরপুর উপজেলার ৪০ একর জমিতে ধান চাষের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি।

‘শস্যচিত্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু জাতীয় পরিষদ’ এর উদ্যোগে এবং ন্যাশনাল এগ্রিকেয়ারের সহযোগিতায় ব্যতিক্রমী এই কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে। শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে শেরপুর উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের বালেন্দা গ্রামের ১২০ বিঘা জমিতে দুই ধরনের ধানের চারা রোপনের মাধ্যমে এই কার্যক্রমের শুভ সূচনা হবে।

আয়োজকরা জানান, শস্যচিত্রে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি ফুটিয়ে তুলতে কয়েক মাস আগ থেকে কাজ শুরু হয়েছে। বালেন্দা গ্রামের একত্রে ১২০ বিঘা জমি কৃষকদের নিকট থেকে লিজ নেয়া হয়েছে। এরপর বিদেশ থেকে আমদানী করা বেগুনি ও সবুজ দুই ধরনের হাইব্রীড ধানের চারা উৎপাদন করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে পরিকল্পনা মোতাবেক স্থানীয় কৃষকদের দিয়ে এসব চারা রোপন করা হবে। যাতে পাখির চোখে ১২০ বিঘা জমিতে রোপনকৃত ধানের দৃশ্যে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ধরা পড়বে। এ উপলক্ষ্যে চারারোপন ও সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে ।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর করিব নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল, শস্যচিত্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু জাতীয় পরিষদের সভাপতি ও বাংলাদেশ কৃষকলীগের সভাপতি সমীর চন্দ্র এবং সদস্য সচিব কৃষিবিদ কেএসএম মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ ।

উপস্থিত থাকবেন। সভাপতিত্ব করবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম। এ ব্যাপারে ন্যাশনাল এগ্রিকেয়ার লি. এর প্রজেক্ট ম্যানেজার মো. সাইফুল ইসলাম জানান, জাতির জনকের জন্মশতবর্ষকে স্মরণীয় করে রাখতে বিশেষ জাতের ধানের চাষের মাধ্যমে জাতির পিতাকে স্মরণ করার উদ্দেশ্যেই এই কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।

এতে করে আকাশ থেকে ভূমির দিকে তাকালে ধানের জমিতে জাতির পিতার প্রতিকৃতি ফুটে উঠবে। বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মজিবর রহমান মজনু জানান, শস্যচিত্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু জাতীয় পরিষদের উদ্যোগে এ ধরনের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ বগুড়ার শেরপুরে নেয়ায় আমরা গর্বিত। ইতোমধ্যে এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। এটি জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বগুড়ার জন্য স্মরণীয় ঘটনা হয়ে থাকবে অনেকেই জানান ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *