ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের অবহেলায় প্রসূতি মায়ের মৃত্যু

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ঃ ঠাকুরগাঁয়ে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের অবহেলায় এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই প্রসূতি দুলালী আক্তার (২৫) ভোলারহাট হরিন্দা গ্রামের আব্দুল খালেকের স্ত্রী। মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) ঠাকুরগাঁও শহরের তাঁতীপাড়ায় অবস্থিত সেভেন ডে নার্সিং হোম এই ঘটনা ঘটে।

রোগীর স্বজন অভিযোগ করে বলেন, দুলালী আক্তার (২৫) সোমবার দুপুরে সিজারিয়ান সমস্যা নিয়ে সেভেন ডে নার্সিং হোম ক্লিনিকে ভর্তি হয়। সন্ধা ৭ টায় তার সিজার করেন ডাঃ হামিদুর রহমান। কিন্তু সিরজারের পর থেকে রোগীর রক্তক্ষনন শুরু হয়। রোগীর শারিরীক অবস্থার অবনতি ঘটলে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষকে বার বার ডেকেও সাড়া মেলেনি। নিহতের স্বামী আব্দুল খালেক জানান ডাক্তার রোগীর সমস্যা দেখা দিলে ক্লিনিক কৃর্তৃপক্ষ ও ডাক্তারকে বার বার ডেকেও পাওয়া যায়নি।

দায়িত্বপ্রাপ্ত ডাক্তার হামিদুর রহমান বলেন রোগী মারা গেলে অনেক কথাই হয়। রোগী তো মারা যেতে পারে বলে জানান তিনি।
সেভেন ডে নার্সিং হোম ক্লিনিকের ম্যানেজার মো. বাদশা বলেন আমাদের দিক থেকে কোন অবহেলা ছিল না। মালিক কর্তৃপক্ষের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি।
এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাহাফুজার রহমান সরকার জানান, এব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি, তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখবো।
উল্লেখ্য, গত কয়েক মাসে ওই ক্লিনিকে কর্তৃপক্ষের অবহেলায় ৪ জন প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *