ধুনটের পৌরপিতা হওয়ার লড়াইয়ে সাবেক বর্তমান তিন আ’লীগ নেতা।

স্টাফ রিপোর্টার :  তৃতীয় ধাপে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে চলতি মাসের ৩০ জানুয়ারি। এই নির্বাচনে ধুনট পৌরসভায় মেয়র পদে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী টি আই এম নুরুন্নবী তারিক, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল( বি এন পি) মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলিমুদ্দিন হারুন মন্ডল,আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী এ জি এম বাদশাহ এবং বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সি পি বি) মনোনীত মেয়র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহা সন্তোষ। এই চার প্রার্থীর মধ্যে সি পি বি মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহা সন্তোষ বাদে বাকি তিন হেভিওয়েট প্রার্থী সাবেক বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতা।

বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত মেয়র প্রার্থী টি আই এম নুরুন্নবী তারিক “নৌকা” প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন। তিনি ১৯৮৬ সাল হতে আওয়ামী রাজনীতির সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত এবং দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

অপরদিকে বি এন পি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলিমুদ্দীন হারুন মন্ডল “ধানের শীষ” প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন।তিনি ধুনট সরকারি এন ইউ পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ভি পি নির্বাচিত হওয়ায় মধ্যদিয়ে আওয়ামী রাজনীতির হাতেখড়ি।এছাড়াও ধুনট সরকারি ডিগ্রি কলেজের জি এস,উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও দুই মেয়াদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। বর্তমানে পৌর বি এন পির আহŸায়ক কমিটির সদস্য।

আরেক মেয়র প্রার্থী সদ্য সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা ও বর্তমান মেয়র এ জি এম বাদশাহ উত্তরাধিকার সূত্রে আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। ১৯৭৮ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণত সম্পাদক, ১৯৮২ সালে সভাপতি ও ১৯৮৪ সালে সরকারি ধুনট ডিগ্রি কলেজের ভি পি নির্বাচিত হন।এছাড়াও উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক ও দীর্ঘদিন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণত সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।এবারের নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগ হতে মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে বিগত পৌর নির্বাচনের ন্যায় বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে “জগ” প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন।

এখন ধুনট উপজেলা তথা পৌর বাসির উৎসুক দৃষ্টি রয়েছে সাবেক বর্তমান এই তিন আওয়ামী লীগ নেতার দিকে।এর মধ্যে হতে কে পৌরসভার ভোটারদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে হতে পারেন ধুনট পৌরসভার কাঙ্ক্ষিত পৌর পিতা?।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *