শেরপুরে “নো মাস্ক, নো সার্ভিস” নিশ্চিত করতে ইউ এন ও’র ভ্রাম্যমাণ আদালত

স্টাফ রিপোর্টার:
বগুড়া জেলা প্রশাসকের নির্দেশে শেরপুর উপজেলা নির্বাহি কমিশনারের নেতৃত্বে জনসাধারণকে সুরক্ষিত রাখতে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম, মাইকিং এবং মোবাইল কোর্ট এর মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।অভিযানে ৮ জনদন্ডিত কে দন্ডিত করা হয়েছে বলে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা সুত্রে জানাগেছে।
করোনাভাইরাস এর দ্বিতীয় পর্যায়ে সংক্রমণ থেকে জনসাধারণকে সুরক্ষিত রাখতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর “নো মাস্ক, নো সার্ভিস” অনুশাসন বাস্তবায়ন করতে আজ ২১শে নভেম্বর শনিবার শেরপুর উপজেলার জনবহুল বিভিন্ন স্থানে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা, মাইকিং এবং মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করেছে শেরপুর উপজেলা প্রশাসন।
শেরপুর থানা পুলিশের সহযোগিতায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো লিয়াকত আলী সেখ এই অভিযান পরিচালনা করে। উপজেলার
হাসপাতাল রোড, দুবলাগাড়ি বাজার, বাগড়া, চকপোতা এলাকা এবং কেল্লাপৌষী বাজার এলাকায় এই কার্যক্রম পরিচালনা করা হয় এইসময় মাইকিংযোগে মাস্ক পরতে জনসাধারণকে উদ্ধুদ্ধ করা হয়।

পাশাপাশি মাস্ক না পরার অপরাধে প্রতিজনকে দুইশত টাকা হিসেবে নোট ৭ জনকে ১৪০০/- টাকা এবং দোকানে প্রকাশ্যে তামাকজাত পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করায় ১জনকে ২০০টাকাসহ মোট ৮জনকে সর্বমোট ১৬০০/- জরিমানা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *