সীমানা নির্ধারণ মামলা জটিলতায় আটকে আছে দেবীগঞ্জ পৌর নির্বাচন

দেবীগঞ্জ (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি:
২০১৬ সালে দেবীগঞ্জ পৌরসভা গেজেট ভুক্ত হওয়ার ৪ বছর পার হয়ে গেলেও সীমানা নির্ধারণ মামলা জটিলতায় আটকে আছে পঞ্চগড় দেবীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন। পৌর নির্বাচন না হওয়ায় রাস্তাঘাট, ব্রিজ-কালভার্ট ও ড্রেনেজ ব্যবস্থাসহ পৌর নাগরিক সুবিধার কোন উন্নয়ন হচ্ছে না বলে অভিযোগ পৌরবাসীদের। তাই পৌর সভার সাধারণ ভোটাররা চান, পৌরসভার উন্নয়নের স্বার্থে ও সার্বিক দিক বিবেচনায় দ্রæত নির্বাচন দেওয়া হোক।

২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী দেবীগঞ্জ পৌরসভা ঘোষনা করেন এবং ২০১৬ সালে দেবীগঞ্জ পৌরসভা গেজেটভুক্ত করা হয়। কিন্তু দেবীগঞ্জ পৌরসভা গেজেট ভুক্ত হওয়ার পর থেকেই একটি কুচক্রী মহল সীমানা জটিলতা দেখিয়ে হাইকোর্টে প্রায় ৫টি মামলা দায়ের করেন। এ কারনেই দেবীগঞ্জ পৌর নির্বাচন স্থগীত করে দেওয়া দেওয়া। এখন পর্যন্ত ৪ টি মামলা পর্যাক্রমে নিস্পত্তি হয়েছে। এই মামলা জটিলতার কারনেই আটকে রয়েছে পৌর নির্বাচন। যার কারনে পৌরবাসী সকল প্রকার পৌর সুযোগ সুবিধা হতে বঞ্চিত হচ্ছে।

পৌরবাসীদের অভিযোগ, নির্বাচন না হওয়ার কারণে আগের জনপ্রতিনিধিরা দীর্ঘ মেয়াদে থাকায় পৌরসভার উন্নয়নসহ নাগরিক সুবিধা থেকে কিছুটা বঞ্চিত হচ্ছেন তারা। রাস্তাঘাট, ব্রিজ-কার্লভার্ট ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার তেমন কোন উন্নয়ন হয়নি। একটু বৃষ্টি হলেই পৌর শহরে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয় তাদের।

তারা বলেন, ভোট আমাদের নাগরিক অধিকার। আমরা প্রায় ৪ বছর থেকে ভোট দিতে পারছি না। পৌরসভার প্রতিনিধিত্বে যে কেউ আসুক, পৌরসভার উন্নয়নের স্বার্থে অবিলম্বে নির্বাচন দেয়া হোক।

পৌরবাসীরা আরো বলেন, দুটি ইউনিয়নের কয়েকজন লোক বাদী হয়ে আদালতে মামলা করেছে। আদালত যে সিদ্ধান্ত দিবে আমরা তা মেনে নেবো। তবে মামলা দ্রæত নিস্পত্তি করে পৌর নির্বাচন দিয়ে পৌরসভার উন্নয়ন তরান্বিত করার দাবি জানাই।

এ বিষয়ে দেবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার এরশাদুল হক মিয়া জানান, সীমানা নির্ধারণের মামলা থাকার কারণে এতোদিন ধরে দেবীগঞ্জ পৌরসভায় নির্বাচন হয়নি। তবে হাইকোর্ট মামলাটি খারিজ করে দিয়েছে। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন থেকে স্থানীয় সরকার বিভাগকে পত্র পাঠানো হয়েছে। পরবর্তীতে তাদের কাছ থেকে মামলা সংক্রান্ত ফাইনাল তথ্য পেলেই পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

পঞ্চগড় ২আসনের এমপি ও মাননীয় রেলপথ মন্ত্রী এ্যাড. নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, একটি কুচক্রী মহল এই পৌর নির্বাচন না হওয়ার জন্য বার বার মামলা করছে। তবে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে সকল প্রকার জটিলতা কাটিয়ে আমরা পৌর নির্বাচন দেওয়ার ব্যাবস্থা করতেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *