সাতক্ষীরায় মিথ্যা মামলা থেকে অব্যহতি পাওয়ার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

এস,এম,হাাবিবুল হাসান :
সাতক্ষীরার শ্যামনগরের একাধিক মামলার আসামী সন্ত্রাসী হাচিম সরদার কর্তৃক দায়ের করা মিথ্যা মামলার দায় থেকে অব্যহতি ও খুন জখমের চক্রান্তের প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে মোছা.ফতেমা বেগম নামে এক গৃহবধূ।

বুধবার(১১ নভেম্বর) বিকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানান।তিনি শ্যামনগর উপজেলার গুমানতলী গ্রামের আব্দুর রহিম গাইনের স্ত্রী এবং তিন সন্তানের জননী।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের উদেশ্যে লিখিত বক্তব্যে ফতেমা বেগম বলেন, আমার স্বামী বিদেশে থাকাকালে আমার উপর কুনজর পড়ে একই এলাকার মোস্তফা সরদারের ছেলে একাধিক মামলা আসামী নারীলোভি সন্ত্রাসী হাচিম সরদারের। এসময় প্রায়ই সে আমাকে কু-প্রস্তাব দিত। আমি তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় একদিন রাতে কৌশলে সে আমার ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক আমাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। কিন্তু এসময় আমার ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে হাচিম সরদার পালিয়ে যায়।

এঘটনার পর থেকে সে আমার বিরুদ্ধে বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্র করতে থাকে। পরবর্তীতে আমার স্বামী বাড়ির বাইরে থাকার সুযোগে চলতি বছরের ২১ জানুয়ারী হাচিম আবারও আমাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়। পরেরদিন আমাকে বেধড়ক মারপিট করে। এঘটনায় স্থানীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলেও সন্ত্রাসী হাচিম সরদার কর্তৃক হুমকি ধামকির কারনে আমি থানায় মামলা দায়ের করতে সাহস পায়নি।

ফতেমা বেগম অভিযোগ করে বলেন, উল্লেখিত ঘটনার কোন বিচার না পেয়ে প্রতিকার চেয়ে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দেই। এতে সন্ত্রাসী হাচিম সরদার আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং আমার স্বামীরা নামে আদালতে একটি মিথ্যে মামলা দায়ের করে। এছাড়া সন্ত্রাসী হাচিম সরদারের সহযোগি রবিউল গংরা অস্ত্র প্রদর্শন কের মুর্হুমুহু খুন জখমের হুমকি দিচ্ছে। ফলে প্রাণের ভয়ে স্বামী ও সন্তান নিয়ে নিজের বাড়ি ছাড়তে বাধ্য হয়েছি। এবিষয়ে থানায় অভিযোগ দিলেও সন্ত্রাসী হাচিম গংদের বিরুদ্ধে দৃশ্যত কোন পদক্ষেপ নেয়নি পুলিশ। সন্ত্রাসী হাচিম গংয়ের কারনে স্বামী ও সন্তানকে নিয়ে দীর্ঘদিন বাড়িছাড়া হয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়াচ্ছি।বাড়িতে গেলে তারা স্বামী ও সন্তানকে খুন জখম সহ বড় ধরনের ক্ষতি করতেপারে।

ফতেমা বেগম আরো বলেন, হাচিমের বিরুদ্ধে থানায় একডজনেরও বেশী মামলা রয়েছে। দলীয় কোন পদ না থাকলেও হাচিম তার সন্ত্রাসী বাহিনীর সহযোগিতায় এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপকর্ম করে যাচ্ছে। স্বামী ও সন্তানদের নিয়ে বাড়িছাড়া হয়ে থাকার পরও আমার শশুর-শাশুড়িকে খুন জখমসহ মারপিটের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। তার অপকর্মের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুললে তাকে মারপিট করার পাশাপাশি সম্পদের ক্ষতিসাধন করাসহ নানা ভাবে হয়রানি করে হাচিম সরদার। আমি দীর্ঘ ১২ বছর ধরে ওই হাচিস সরদারের দ্বারা নির্যাতনের শিকার হয়ে অসছি। তার ভয়ে বাড়িছাড়া হয়ে থাকায় আমার সন্তানদের লেখাপড়া দারুনভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। তিনি সন্ত্রাসী হাচিম সরদারের হাত থেকে স্বামী ও সন্তানদেরকে রক্ষা এবং যাতে নিজের বসত ভিটায় ফিরে গিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে পারেন তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *