ঠাকুরগাঁওয়ে ১৫ হাজার ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যাবসায়ী গ্রেফতার

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ঃ ঠাকুরগাঁওয়ে ১৫ হাজার ইয়াবাসহ আবু সাঈদ (২১) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ কামাল হোসেন প্রেসব্রিফিংয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আবু তাহের মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মো: মোসফেকুর রহমান, ডিবি ওসি রফিকুল ইসলাম, পুলিশ পরিদর্শক ডিআইও-১ নাজমুল আলম, প্রেস ক্লাবের সভাপতি মনসুর আলীসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্টিং মিডিয়ার প্রতিনিধিগণ।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সংবাদ সম্মেলনে জানান গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবাসয়ী জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দলুয়া কুল্লী বস্তি গ্রামের মোঃ ভোদা মিঞার ছেলে। তিনি জানান গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনা ও পরিকল্পা অনুযায়ী ঠাকুরগাঁও বিআরটিসি কাউন্টারে বাস থেকে নামার সময় তাকে হাতে নাতে ধরে ফেলা হয়। এ সময় তারসহযোগি আমানুল্লাহ আমান(৪৫) হার হাতে থাকা ব্যাগে ৩ হাজার পি ইয়াবা টেবলেট রেখে পালিয়ে যায়।
গ্রেফতারকৃত আবু সাঈদের তথ্যের ভিত্তিতে মাদকের স¤্রাট বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দলুয়া কুল্লী বস্তি গ্রামের সামসুল হকের ছেলে শাহজাহান (২৩), হারুন অর রশীদ (৪০) ও দুলাল হোসেনের (৩১) বাড়ীতে অভিযান চালায়। এসময় তাদের ধরতে না পারলেও তাদের শয়ন কক্ষ হতে ১২০পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, ১০৩টি সীমকার্ড, ১টি রেজিষ্টার, ১টি ডায়রী ও ১টি সেমফোনি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে। যে রেজিষ্টার এবং ডায়রিতে ইয়াবা ট্যাবলেটের হিসাব সংক্রান্ত তথ্যের প্রমান পাওয়া যায় বলে জানান।
এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঠাকুরগাঁও থানা এবং বালিয়াডাঙ্গী থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে আরো জানা যায় গত ২০ সেপ্টেম্বর ২৭ হাজার ১’শ বিরানব্বই পিচ ইয়াবা উদ্ধার করে চট্টগ্রাম জেলার আকবর শাহ থানায় শাহজাহান, হারুন অর রশীদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের হয়।
প্রেস ব্রিফিংকালে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন আমরা জেনেছি যে মাদক ব্যবসায়ী আবু সাঈদকে গ্রেফতারের দিন মাদকের মূল হোতা শাহজাহান, হারুন অর রশীদ, দুলাল হোসেনের বাড়ীতে গরু জবাই করে বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসিসহ অন্য স্টাফদের দাওয়াত করা হয়েছিল। উত্তরে তিনি বলেন বিষয়টি আমাদের জানা নেই, তবে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *