বগুড়ায় আয়কর মেলার উদ্ভোধনে ২৮ জন সেরা করদাতাকে সম্মাননা প্রদান

0
7

বগুড়া প্রতিনিধি:
বগুড়ায় চারদিন ব্যাপি আয়কর মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে । আগামী ১৪ থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত চারদিন ব্যাপি উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে কর অঞ্চল বগুড়ার ২৮ জন সেরা করদাতাকে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদপত্র বিতরন করা হয়েছে। বুধবার সকাল ১১ টায় শহরের বিয়াম ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে এ উপলক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে কর অঞ্চল বগুড়া।
কর কমিশনার আবু সাঈদ মো: মুস্তাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বগুড়া, জয়পুরহাট, সিরাজগঞ্জ ও গাইবান্ধা জেলার ২৮ জন করদাতাকে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদপত্র দেয়া হয়। প্রতি জেলার ৩ জন সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী করদাতা, ২ জন দীর্ঘ মেয়াদি কর প্রদানকারী, সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী করদাতা (মহিলা) ও তরুন সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী করদাতাকে সম্মাননা দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য কৃষিবীদ আব্দুল মান্নান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মাসুম আলী বেগ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী, বগুড়া চেম্বার অব কমার্স সভাপতি ও জেলায় টানা ৯ম বার সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী মাসুদুর রহমান মিলন, প্রেসক্লাব সভাপতি মোজাম্মেল হক. ট্যাক্সেস ল’ইয়ার্স এসোসিয়েশন সভাপতি এড আব্দুল হামিদ, অতি: কর কমিশনার জাকির হোসেন, সিরাজগঞ্জের সর্বোচ্চ করদাতা জান্নাত আরা হেনরী, গাইবান্ধা জেলার আব্দুল লতিফ হক্কানী, শাহ মো: আহসান হাবীব, জয়পুরহাট জেলার বজলুর রশিদ মন্টু প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কর পরিদর্শক হজরত আলী ও তৌহিদা খাতুন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এমপি আব্দুল মান্নান বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের রোল মডেল বাংলাদেশ। তিনি দক্ষতা দিয়ে বিশ্বের বুকে দেশকে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনের লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে। দেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। খাদ্যশষ্য ও বিদ্যুৎ উৎপাদন, কৃষি, যোগাযোগ ব্যবস্থা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য সকল ক্ষেত্রে দেশ এগিয়ে গেছে। তিনি বলেন, সবাইকে কর দেয়ার জন্য অনুপ্রানিত করতে হবে। সেক্ষেত্রে কর্মকর্তাদের অগ্রণী ভুমিকা পালন করতে হবে যাতে করে মানুষ সহজেই কর দিতে পারে। দেশের উন্নয়নে সকলকে একসাথে কাজ করে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়ার আহবান জানান তিনি।
জেলায় টানা ৯ ম বার সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী চেম্বার অব কমার্স সভাপতি মাসুদুর রহমান মিলন ২০১৮-১৯ কর বর্ষ সহ ২৩ বছরে তিনি ২৬ কোটি ২৪ লাখ ৩৪ হাজার ৬৪১ টাকা আয়কর দিয়েছেন বলে জানান।
বগুড়া জেলায় সম্মাননা পেয়েছেন সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী করদাতা বিশিষ্ঠ ঠিকাদার বীরমুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী ও বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী অশোক রায়, দীর্ঘ মেয়াদী কর প্রদানকারী মরিয়ম বেগম ও কাহালুর বিশিষ্ঠ ঠিকাদার ব্যবসায়ী আবুল মনসুর খাঁন, সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী করদাতা (মহিলা) এবিসি টাইলস এর মোছা: জিনিয়া পারভিন, তরুন সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী করদাতা এবিসি টাইলস এর আনোয়ার হোসেন।