ঢাকা ১০:৫২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বগুড়ার সান্তাহারে ৭২ হাজার টাকার জাল নোটসহ একজন গ্রেপ্তার জেলা যুবলীগের আয়োজনে ইফতার বিতরণ আদমদীঘিতে স্বামী স্ত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট মামলায় আরো দুইজন গ্রেফতার আদমদীঘিতে ট্রাকের ধাক্কায় একজন নিহত সিরাজদিখানে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে শিক্ষকদের করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ধুনট থিয়েটারের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় ঔষধ বাজারে সয়লাব বিক্রি নিষিদ্ধ ফিজিশিয়ান স্যাম্পলে সিরাজগঞ্জে বিশ্ব নাট্য দিবস পালিত মনন সাহিত্য সংগঠনের পাক্ষিক অধিবেশন এবং ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় সিএনজি চালিত গাড়ির সিলিন্ডার রি-টেস্টিং শতভাগ নিশ্চিত করা সময়েরদাবী গোমস্তাপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত বগুড়ায় ধর্ষণের ঘটনা ধামা চাপা দিতে তামিমকে হত্যা করা হয়েছিলো বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনায় একজন ছুরিকাঘাত বাজার এলাকায় উত্তেজনা হলে ইউএনও ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন। নওগাঁয় প্রভাবশাী ক্ষমতাবলে দীর্ঘ ৩ মাস ধরে গৃহবন্দী পরিবার নওগাঁয় ভূমি অফিসে অভিযান দালাল চক্রের সদস্যকে অর্থদণ্ড নওগাঁর বিভিন্ন দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান ব্যবসায়ীকে জরিমানা বগুড়ায় ট্রাক ও অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৩ জনসহ নিহত ৪ আহত ২ আদমদীঘিতে শ্বাশুড়ীকে খুনের মামলায় জামাই প্রেফতার নওগাঁয় মাদক ও অসামাজিক কাজ বন্ধের মানববন্ধন টাঙ্গাইলের মধুপুরে কবর থেকে ৫টি কঙ্কাল চুরি সানোড়া ইউপি’র উপ নির্বাচনে প্রতীক পেলেন ছয় চেয়ারম্যান প্রার্থী

নওগাঁয় মাদক ও অসামাজিক কাজ বন্ধের মানববন্ধন

নওগাঁ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৮:৫১:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪ ৩৩ বার পড়া হয়েছে

 

নওগাঁয় মাদক ও অসামাজিক কাজে জড়িত সাথী আক্তার ও তার স্বামী রতন হোসেন এর বিচার দাবিতে রাস্তায় নেমেছে নওগাঁ পৌরশহর এলাকার সচেতন বাসিন্দারা। তাদের অভিযোগ সাথী এলাকায় করেন দেহব্যবসা, আর তার স্বামী করেন মাদক ব্যবসা। তারা বসবাস করেন আরজি-নওগাঁ লাটাপাড়া এলাকায়। আর তাদের হাত থেকে যুবসমাজকে রক্ষা করতে ফুঁসে উঠেছে এলাকাবাসী। তাই বাধ্য হয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন অত্র এলাকার মানুষ। বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুর ১২টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী চলা এই মানববন্ধনে দুই শতাধিক নারী-পুরুষ বিচারের আশায় উপস্থিত ছিলেন। তাদের হাতে ছিল নানা ধরনের ব্যানার ফেস্টুন। এলাকাবাসীর পক্ষে সভাপতিত্ব করেন রিপন শেখ। সেখানে বক্তব্য রাখেন মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষক তাসলিমা খাতুন। এলাকাবাসী জানান একটি সমাজ দুটি কারণে ধ্বংস হতে পারে। আর এই দুটি কারণ সাথী ও তার স্বামী রতনের মধ্যে আছে। তাই পুলিশ প্রশাসনসহ সকলের কাছে অনুরোধ স্বামী-স্ত্রী দুজনের হাত থেকে আমাদের যুবসমাজ তথা এলাকাবাসীকে এখনই রক্ষা করা প্রয়োজন। স্থানীয় বাসিন্দা শফিকুল ইসলাম টুকু, সজীব হোসেন, বেদারুল ইসলাম টিটু, মাসুদুর রহমানসহ আরে বেশ কয়েকজন জানান সাথী ও তার স্বামী যদি এলাকাতে থাকে, তাহলে এই এলাকার সুনাম নষ্ট হতে আর বেশি দিন লাগবে না। একসময় এই এলাকা ভালো ছিল। কিন্তু তারা স্বামী-স্ত্রী আসার পর শুরু হয় মাদক সেবীদের আনাগোনা। প্রকাশ্যে বিক্রি করতে থাকে মাদক। এছাড়া আমরা জানতে পারি তাদের বাড়িতে অসামাজিক কার্যকলাপ হয়। তাদের এমন কর্মকাণ্ডে এলাকাবাসী কিছু বলতে গেলে মানহানির ভয় দেখায়। ফলে তাদের ভয়ে এলাকাবাসী কিছু বলতে পারে না। আর তার এসব অবৈধ কর্মকাণ্ড করে চলাফেরা রাজকীয় স্টাইলে। তাদের নিজস্ব তেমন কোনো আয়ের উৎস নেই, অথচ থাকে এসি ঘরে। করেছে চোখ ধাঁধানো বাড়ি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাথীর মুঠোফোনে ফোন দিলে তিনি রিসিভ করেননি। পরে আবার যোগাযোগের চেষ্টা করলে মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তাদের বাড়িতে গিয়েও স্বামী-স্ত্রী কাউকেই পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান ( প্রশাসন ও অর্থ) সাংবাদিকদের জানান যেকোন অপরাধ ও অন্যায়মূলক কাজের সঙ্গে পুলিশের কোনো আপোষ নেই। তারক যদি মাদক বা অসামাজিক কার্যকলাপের সাথে জড়িত থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাছাড়া মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করি। তাই বিষয়টি খুঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ads

নওগাঁয় মাদক ও অসামাজিক কাজ বন্ধের মানববন্ধন

আপডেট সময় : ০৮:৫১:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪

 

নওগাঁয় মাদক ও অসামাজিক কাজে জড়িত সাথী আক্তার ও তার স্বামী রতন হোসেন এর বিচার দাবিতে রাস্তায় নেমেছে নওগাঁ পৌরশহর এলাকার সচেতন বাসিন্দারা। তাদের অভিযোগ সাথী এলাকায় করেন দেহব্যবসা, আর তার স্বামী করেন মাদক ব্যবসা। তারা বসবাস করেন আরজি-নওগাঁ লাটাপাড়া এলাকায়। আর তাদের হাত থেকে যুবসমাজকে রক্ষা করতে ফুঁসে উঠেছে এলাকাবাসী। তাই বাধ্য হয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন অত্র এলাকার মানুষ। বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুর ১২টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী চলা এই মানববন্ধনে দুই শতাধিক নারী-পুরুষ বিচারের আশায় উপস্থিত ছিলেন। তাদের হাতে ছিল নানা ধরনের ব্যানার ফেস্টুন। এলাকাবাসীর পক্ষে সভাপতিত্ব করেন রিপন শেখ। সেখানে বক্তব্য রাখেন মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষক তাসলিমা খাতুন। এলাকাবাসী জানান একটি সমাজ দুটি কারণে ধ্বংস হতে পারে। আর এই দুটি কারণ সাথী ও তার স্বামী রতনের মধ্যে আছে। তাই পুলিশ প্রশাসনসহ সকলের কাছে অনুরোধ স্বামী-স্ত্রী দুজনের হাত থেকে আমাদের যুবসমাজ তথা এলাকাবাসীকে এখনই রক্ষা করা প্রয়োজন। স্থানীয় বাসিন্দা শফিকুল ইসলাম টুকু, সজীব হোসেন, বেদারুল ইসলাম টিটু, মাসুদুর রহমানসহ আরে বেশ কয়েকজন জানান সাথী ও তার স্বামী যদি এলাকাতে থাকে, তাহলে এই এলাকার সুনাম নষ্ট হতে আর বেশি দিন লাগবে না। একসময় এই এলাকা ভালো ছিল। কিন্তু তারা স্বামী-স্ত্রী আসার পর শুরু হয় মাদক সেবীদের আনাগোনা। প্রকাশ্যে বিক্রি করতে থাকে মাদক। এছাড়া আমরা জানতে পারি তাদের বাড়িতে অসামাজিক কার্যকলাপ হয়। তাদের এমন কর্মকাণ্ডে এলাকাবাসী কিছু বলতে গেলে মানহানির ভয় দেখায়। ফলে তাদের ভয়ে এলাকাবাসী কিছু বলতে পারে না। আর তার এসব অবৈধ কর্মকাণ্ড করে চলাফেরা রাজকীয় স্টাইলে। তাদের নিজস্ব তেমন কোনো আয়ের উৎস নেই, অথচ থাকে এসি ঘরে। করেছে চোখ ধাঁধানো বাড়ি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাথীর মুঠোফোনে ফোন দিলে তিনি রিসিভ করেননি। পরে আবার যোগাযোগের চেষ্টা করলে মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তাদের বাড়িতে গিয়েও স্বামী-স্ত্রী কাউকেই পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান ( প্রশাসন ও অর্থ) সাংবাদিকদের জানান যেকোন অপরাধ ও অন্যায়মূলক কাজের সঙ্গে পুলিশের কোনো আপোষ নেই। তারক যদি মাদক বা অসামাজিক কার্যকলাপের সাথে জড়িত থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাছাড়া মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করি। তাই বিষয়টি খুঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।