ঢাকা ১২:২২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বগুড়ার সান্তাহারে ৭২ হাজার টাকার জাল নোটসহ একজন গ্রেপ্তার জেলা যুবলীগের আয়োজনে ইফতার বিতরণ আদমদীঘিতে স্বামী স্ত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট মামলায় আরো দুইজন গ্রেফতার আদমদীঘিতে ট্রাকের ধাক্কায় একজন নিহত সিরাজদিখানে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে শিক্ষকদের করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ধুনট থিয়েটারের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় ঔষধ বাজারে সয়লাব বিক্রি নিষিদ্ধ ফিজিশিয়ান স্যাম্পলে সিরাজগঞ্জে বিশ্ব নাট্য দিবস পালিত মনন সাহিত্য সংগঠনের পাক্ষিক অধিবেশন এবং ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় সিএনজি চালিত গাড়ির সিলিন্ডার রি-টেস্টিং শতভাগ নিশ্চিত করা সময়েরদাবী গোমস্তাপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত নওগাঁয় সর্প দংশনে এক শিশুর মৃত্যু ( প্রতীকি ছবি) বগুড়ায় ধর্ষণের ঘটনা ধামা চাপা দিতে তামিমকে হত্যা করা হয়েছিলো বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনায় একজন ছুরিকাঘাত বাজার এলাকায় উত্তেজনা হলে ইউএনও ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন। নওগাঁয় প্রভাবশাী ক্ষমতাবলে দীর্ঘ ৩ মাস ধরে গৃহবন্দী পরিবার নওগাঁয় ভূমি অফিসে অভিযান দালাল চক্রের সদস্যকে অর্থদণ্ড নওগাঁর বিভিন্ন দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান ব্যবসায়ীকে জরিমানা বগুড়ায় ট্রাক ও অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৩ জনসহ নিহত ৪ আহত ২ আদমদীঘিতে শ্বাশুড়ীকে খুনের মামলায় জামাই প্রেফতার নওগাঁয় মাদক ও অসামাজিক কাজ বন্ধের মানববন্ধন টাঙ্গাইলের মধুপুরে কবর থেকে ৫টি কঙ্কাল চুরি

আদমদীঘিতে বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রগুলিতে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়

সজীব হাসান, আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১১:৪৩:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪ ৭৪ বার পড়া হয়েছে

বগুড়া জেলার আদমদীঘি উপজেলার বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে কুরবানি ঈদ উপলক্ষে বিনোদন নিতে আসা অবসর সময় কাটাতে এসব বিনোদন কেন্দ্রে উপচে পড়া দর্শনার্থীদের ভীড়ে মুখরিত হয়ে ওঠে। সেই সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলা সহ বিভিন্ন শহর ও গ্রামের দূরান্ত থেকে এসব বিনোদন স্পষ্টে ছোট, বড় সহ স্কুল কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন বয়সের নানান পেশার মানুষ এসব বিনোদন স্পটে ঈদের আনন্দ মুহূর্ত কাটাতে এসেছেন। ঈদ উপলক্ষে উপজেলার সান্তাহার পৌর সান্তাহারের ফারিস্তা পার্ক, শখের পল্লী পার্ক, ডানা পার্কসহ বিভিন্ন বিনোদনকেন্দ্র ছিল উপচে পড়া ভিড়। ঈদের দিন ও পরে গত ২/৩ দিন প্রতিদিন এই সব বিনোদন কেন্দ্র গুলিতে ঘুরে প্রিয়জনদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নিতে দেখা গেছে অনেককে। সান্তাহার-বগুড়া সড়কে পাশে সান্তাহার সাইলো সড়কের পাশে অবস্থিত সান্তাহার ফারিস্তা পার্ক। গতকাল সরজমিনে সান্তাহার ফারিস্তা পার্কে গিয়ে দেখা যায়, টিকিট কাউন্টারের সামনে দর্শনার্থীরা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কাটছে। এখানে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। নানা বয়সের দর্শনার্থীদের এখানে বিভিন্ন যানবাহনে করে এসেছেন। সেখানে কথা হয় আদমদীঘি থেকে আসা ফারুক হোসেন এর সাথে । তিনি জানান, বাচ্চাদের সারা বছর পড়াশুনার চাপের কারনে কোথাও বেড়াতে নিয়ে যাওয়া হয় না । ঈদের ছুটতে তাই বাচ্চাদের নিয়ে বেড়িয়েছি । এই ফারিস্তা পার্কে আছে কৃত্রিম রেলগাড়ী, বাচ্চাদের বিভিন্ন রাইডার , সুইমিং পুল, নানা কৃত্রিম প্রাণীর মূর্তি, কমিউনিটি সেন্টার পার্কের ভেতরে বিভিন্ন স্টল ইত্যাদি। এখানকার কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ে,জন্মদিন, রাজনৈতিক দলের নানা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সান্তাহার পৌরসভার সড়কের বশিপুর পার্শ্বে অবস্থিত শখের পল্লী পার্ক । প্রায় ৪৫ বিঘা জায়গার উপরে অবস্থিত ২০১৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এই পার্কে আছে মিনি চিড়িয়াখানা, কেবল কার রাইডার, শিশুদের জন্য বিভিন্ন রাইডার,। এখানে আছে ধব্রতারা ও শুকতারা নামে দুটি কটেজ। এই কটেজে দুর-দুরান্ত থেকে পর্যটকরা এসে রাত্রীযাপন করতে পারেন।
ঈদ উপলক্ষে কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন আইটেম বৃদ্ধি করেছে এই পার্কে। ঈদ উপলক্ষে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় এই বিনোদনকেন্দ্রে। বগুড়া,নওগাাঁ,আত্রাই সহ নানা স্থান থেকে অনেকে দলবদ্ধভাবে এই বিনোদনকেন্দ্রে ভ্রমনে এসেছে। বগুড়ার কাহালু থেকে বাস ভাড়া করে একটি নারী-পুরুষের দল এই বিনোদনকেন্দ্রে এসেছে। সোহেল নামে একজন শিক্ষার্থী জানান আগামী সপ্তাহে স্কুল-কলেজ খুলবে। তাই বন্ধুদের নিয়ে এখানে বেড়াতে এসেছি। এই বিনোদনকেন্দ্রের স্বত্বাধীকারী নজরুল ইসলাম জানান , করোনার সময়ে ব্যবসা ভাল হয়নি। এবারে আশা করছি বিনোদনকেন্দ্র ভালভাবে চালাতে পারবো। ঈদের দিন ও এর পরদিন বিভিন্ন বিনোদনকেন্দ্র ঘুরে প্রতিটি বিনোদনকেন্দ্রেই শিশু, নারীসহ সব শ্রেনী-পেশার মানুষের উপস্থিতি দেখা গেছে। এ দিকে সান্তাহার মনোমুগ্ধকর সাইলো সড়ক,কদমা মৎস খামার, সান্তহার জংসন ষ্টেশনে, ঐতিহাসিক রক্তদহ বিল পাড় এলাকাগুলিতেও দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মত। প্রচন্ড তাপদাহে বিকেলে শত শত মানুষকে সান্তাহার
সাইলো সড়কে দেখা গেছে। সান্তাহার সাইলো সড়ক থেকে ঐতিহাসিক রক্তদহ বিল এলাকায় সড়কে ছিল লোকে লোকারোন্য। মোটরবাইক, টমটম, ভ্যানগাড়িসহ বিভিন্ন যানবাহনে নানা শ্রেনীর ভ্রমন পিপিসু মানুষদের দেখা গেছে। এ বিষয়ে আদমদীঘি থানার ওসি রাজেশ কুমার চক্রবর্তী জানান, ঈদ উপলক্ষে বিনোদন কেন্দ্রসহ
উপজেলার নানা স্থানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোড়দার করা হয়েছিল। এবারের ঈদে ২/১ টি সড়ক দুর্ঘঠনা ছাড়া কোথাও কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটেনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ads

আদমদীঘিতে বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রগুলিতে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়

আপডেট সময় : ১১:৪৩:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

বগুড়া জেলার আদমদীঘি উপজেলার বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে কুরবানি ঈদ উপলক্ষে বিনোদন নিতে আসা অবসর সময় কাটাতে এসব বিনোদন কেন্দ্রে উপচে পড়া দর্শনার্থীদের ভীড়ে মুখরিত হয়ে ওঠে। সেই সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলা সহ বিভিন্ন শহর ও গ্রামের দূরান্ত থেকে এসব বিনোদন স্পষ্টে ছোট, বড় সহ স্কুল কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন বয়সের নানান পেশার মানুষ এসব বিনোদন স্পটে ঈদের আনন্দ মুহূর্ত কাটাতে এসেছেন। ঈদ উপলক্ষে উপজেলার সান্তাহার পৌর সান্তাহারের ফারিস্তা পার্ক, শখের পল্লী পার্ক, ডানা পার্কসহ বিভিন্ন বিনোদনকেন্দ্র ছিল উপচে পড়া ভিড়। ঈদের দিন ও পরে গত ২/৩ দিন প্রতিদিন এই সব বিনোদন কেন্দ্র গুলিতে ঘুরে প্রিয়জনদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নিতে দেখা গেছে অনেককে। সান্তাহার-বগুড়া সড়কে পাশে সান্তাহার সাইলো সড়কের পাশে অবস্থিত সান্তাহার ফারিস্তা পার্ক। গতকাল সরজমিনে সান্তাহার ফারিস্তা পার্কে গিয়ে দেখা যায়, টিকিট কাউন্টারের সামনে দর্শনার্থীরা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কাটছে। এখানে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। নানা বয়সের দর্শনার্থীদের এখানে বিভিন্ন যানবাহনে করে এসেছেন। সেখানে কথা হয় আদমদীঘি থেকে আসা ফারুক হোসেন এর সাথে । তিনি জানান, বাচ্চাদের সারা বছর পড়াশুনার চাপের কারনে কোথাও বেড়াতে নিয়ে যাওয়া হয় না । ঈদের ছুটতে তাই বাচ্চাদের নিয়ে বেড়িয়েছি । এই ফারিস্তা পার্কে আছে কৃত্রিম রেলগাড়ী, বাচ্চাদের বিভিন্ন রাইডার , সুইমিং পুল, নানা কৃত্রিম প্রাণীর মূর্তি, কমিউনিটি সেন্টার পার্কের ভেতরে বিভিন্ন স্টল ইত্যাদি। এখানকার কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ে,জন্মদিন, রাজনৈতিক দলের নানা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সান্তাহার পৌরসভার সড়কের বশিপুর পার্শ্বে অবস্থিত শখের পল্লী পার্ক । প্রায় ৪৫ বিঘা জায়গার উপরে অবস্থিত ২০১৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এই পার্কে আছে মিনি চিড়িয়াখানা, কেবল কার রাইডার, শিশুদের জন্য বিভিন্ন রাইডার,। এখানে আছে ধব্রতারা ও শুকতারা নামে দুটি কটেজ। এই কটেজে দুর-দুরান্ত থেকে পর্যটকরা এসে রাত্রীযাপন করতে পারেন।
ঈদ উপলক্ষে কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন আইটেম বৃদ্ধি করেছে এই পার্কে। ঈদ উপলক্ষে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় এই বিনোদনকেন্দ্রে। বগুড়া,নওগাাঁ,আত্রাই সহ নানা স্থান থেকে অনেকে দলবদ্ধভাবে এই বিনোদনকেন্দ্রে ভ্রমনে এসেছে। বগুড়ার কাহালু থেকে বাস ভাড়া করে একটি নারী-পুরুষের দল এই বিনোদনকেন্দ্রে এসেছে। সোহেল নামে একজন শিক্ষার্থী জানান আগামী সপ্তাহে স্কুল-কলেজ খুলবে। তাই বন্ধুদের নিয়ে এখানে বেড়াতে এসেছি। এই বিনোদনকেন্দ্রের স্বত্বাধীকারী নজরুল ইসলাম জানান , করোনার সময়ে ব্যবসা ভাল হয়নি। এবারে আশা করছি বিনোদনকেন্দ্র ভালভাবে চালাতে পারবো। ঈদের দিন ও এর পরদিন বিভিন্ন বিনোদনকেন্দ্র ঘুরে প্রতিটি বিনোদনকেন্দ্রেই শিশু, নারীসহ সব শ্রেনী-পেশার মানুষের উপস্থিতি দেখা গেছে। এ দিকে সান্তাহার মনোমুগ্ধকর সাইলো সড়ক,কদমা মৎস খামার, সান্তহার জংসন ষ্টেশনে, ঐতিহাসিক রক্তদহ বিল পাড় এলাকাগুলিতেও দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মত। প্রচন্ড তাপদাহে বিকেলে শত শত মানুষকে সান্তাহার
সাইলো সড়কে দেখা গেছে। সান্তাহার সাইলো সড়ক থেকে ঐতিহাসিক রক্তদহ বিল এলাকায় সড়কে ছিল লোকে লোকারোন্য। মোটরবাইক, টমটম, ভ্যানগাড়িসহ বিভিন্ন যানবাহনে নানা শ্রেনীর ভ্রমন পিপিসু মানুষদের দেখা গেছে। এ বিষয়ে আদমদীঘি থানার ওসি রাজেশ কুমার চক্রবর্তী জানান, ঈদ উপলক্ষে বিনোদন কেন্দ্রসহ
উপজেলার নানা স্থানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোড়দার করা হয়েছিল। এবারের ঈদে ২/১ টি সড়ক দুর্ঘঠনা ছাড়া কোথাও কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটেনি।