ঢাকা ১০:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বগুড়ার সান্তাহারে ৭২ হাজার টাকার জাল নোটসহ একজন গ্রেপ্তার জেলা যুবলীগের আয়োজনে ইফতার বিতরণ আদমদীঘিতে স্বামী স্ত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট মামলায় আরো দুইজন গ্রেফতার আদমদীঘিতে ট্রাকের ধাক্কায় একজন নিহত সিরাজদিখানে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে শিক্ষকদের করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ধুনট থিয়েটারের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় ঔষধ বাজারে সয়লাব বিক্রি নিষিদ্ধ ফিজিশিয়ান স্যাম্পলে সিরাজগঞ্জে বিশ্ব নাট্য দিবস পালিত মনন সাহিত্য সংগঠনের পাক্ষিক অধিবেশন এবং ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় সিএনজি চালিত গাড়ির সিলিন্ডার রি-টেস্টিং শতভাগ নিশ্চিত করা সময়েরদাবী গোমস্তাপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত বগুড়ায় ধর্ষণের ঘটনা ধামা চাপা দিতে তামিমকে হত্যা করা হয়েছিলো বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনায় একজন ছুরিকাঘাত বাজার এলাকায় উত্তেজনা হলে ইউএনও ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন। নওগাঁয় প্রভাবশাী ক্ষমতাবলে দীর্ঘ ৩ মাস ধরে গৃহবন্দী পরিবার নওগাঁয় ভূমি অফিসে অভিযান দালাল চক্রের সদস্যকে অর্থদণ্ড নওগাঁর বিভিন্ন দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান ব্যবসায়ীকে জরিমানা বগুড়ায় ট্রাক ও অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৩ জনসহ নিহত ৪ আহত ২ আদমদীঘিতে শ্বাশুড়ীকে খুনের মামলায় জামাই প্রেফতার নওগাঁয় মাদক ও অসামাজিক কাজ বন্ধের মানববন্ধন টাঙ্গাইলের মধুপুরে কবর থেকে ৫টি কঙ্কাল চুরি সানোড়া ইউপি’র উপ নির্বাচনে প্রতীক পেলেন ছয় চেয়ারম্যান প্রার্থী

আদমদীঘিতে অনুমোদন ছাড়াই সড়কের গাছ কাটার অভিযোগ

আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধি :
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৬:০৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪ ৪৮ বার পড়া হয়েছে

 

সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের অনুমোদন ছাড়াই বগুড়ার আদমদীঘিতে সড়কের দু’পাশ থেকে অবৈধভাবে কেটে রাখা ১০টি গাছ জব্দ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে বগুড়া সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সুলতানা খানম গাছগুলো জব্দ করেন। উপজেলার দমদমা-কদমা সড়কের রক্তদহ বিলের নতুন ব্রিজ এলাকা থেকে এসব গাছ কাটেন ওই এলাকার আব্দুস সালাম নামের এক কাঠ ব্যবসায়ী। তিনি কার নির্দেশে গাছগুলো কাটছেন বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে বলে জানান সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সুলতানা খানম।
জানা গেছে, গত ১৬ বছর আগে উপজেলার সান্তাহার ইউপির দমদমা গ্রামের ২৮জন যুবক মিলে দলবদ্ধভাবে নিজ উদ্যোগে সড়কের দু’পাশে দেড় শতাধীক ইউক্যালিপটাস গাছ রোপন করেন। তাঁরাই যত্ন নিয়ে এসব গাছ বড় করেন। হঠাৎ বুধবার সকাল থেকে দমদমা গ্রামের কাঠ ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম এসব কাছ কাটতে শুরু করেন। খবর পেয়ে পরের দিন বৃহস্পতিবার বিকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সালামসহ যারা উপস্থিত
ছিলেন সকলকে গাছ কাটতে নিষেধ করেন। দমদমা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আতোয়ার রহমান জানান গাছগুলো আমার ছেলে শাহরিয়ার কবির শিপলুসহ আমার মহল্লার প্রায় ২৮জন যুবক রোপন করেন। কিন্তুু তাদের না জানিয়েই গাছগুলো কাটা শুরু করেন। অনুমোদন ছাড়াই বৃক্ষরোপন কারিদের না জানিয়ে তিনি গাছগুলো কাটা অন্যায় এবং অপরাধ করেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য জোড় দাবী জানাচ্ছি। জানতে চাইলে আব্দুস সালাম জানান, তিনি গাছগুলো কিনে নিয়েছেন মাত্র। গাছগুলো কাটতে দমদমা পূর্বপাড়া মসজিদের নামে একটি দরখাস্ত দেওয়া হয়। এরপর সড়ক ও জনপথ বিভাগ থেকে তাদের একটি কাগজ দিয়েছে। গাছগুলো কাটার কাগজ তার কাছে রয়েছে। কিন্তু তিনি সেই কাগজ কাউকে দেখাতে রাজী নয়। এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসা আদমদীঘি থানার উপ পরিদর্শক মানিক কুমার জানান আব্দুস সালাম অনুমোদনের কোনো কাগজ দেখাতে পারেন নি। গাছ কাটতে নিষেধ করা হয়েছে। সেই সাথে সংশ্লীষ্ট দপ্তরকে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে। জানতে চাইলে আদমদীঘি উপজেলা বন কর্মকর্তা মতিয়ার রহমান এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা (ইউএনও) জানান, বিষয়টি দেখা হবে। বগুড়া সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সুলতানা খানম জানান, ওই সড়কে গাছ কাটতে তাঁরা কাউকে অনুমোদন দেন নি। অবৈধভাবে গাছ কাটায় বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাস্থল থেকে ১০টি গাছ জব্দ করা হয়েছে। তদন্তপূর্বক জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ads

আদমদীঘিতে অনুমোদন ছাড়াই সড়কের গাছ কাটার অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৯:৫৬:০৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪

 

সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের অনুমোদন ছাড়াই বগুড়ার আদমদীঘিতে সড়কের দু’পাশ থেকে অবৈধভাবে কেটে রাখা ১০টি গাছ জব্দ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে বগুড়া সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সুলতানা খানম গাছগুলো জব্দ করেন। উপজেলার দমদমা-কদমা সড়কের রক্তদহ বিলের নতুন ব্রিজ এলাকা থেকে এসব গাছ কাটেন ওই এলাকার আব্দুস সালাম নামের এক কাঠ ব্যবসায়ী। তিনি কার নির্দেশে গাছগুলো কাটছেন বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে বলে জানান সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সুলতানা খানম।
জানা গেছে, গত ১৬ বছর আগে উপজেলার সান্তাহার ইউপির দমদমা গ্রামের ২৮জন যুবক মিলে দলবদ্ধভাবে নিজ উদ্যোগে সড়কের দু’পাশে দেড় শতাধীক ইউক্যালিপটাস গাছ রোপন করেন। তাঁরাই যত্ন নিয়ে এসব গাছ বড় করেন। হঠাৎ বুধবার সকাল থেকে দমদমা গ্রামের কাঠ ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম এসব কাছ কাটতে শুরু করেন। খবর পেয়ে পরের দিন বৃহস্পতিবার বিকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সালামসহ যারা উপস্থিত
ছিলেন সকলকে গাছ কাটতে নিষেধ করেন। দমদমা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আতোয়ার রহমান জানান গাছগুলো আমার ছেলে শাহরিয়ার কবির শিপলুসহ আমার মহল্লার প্রায় ২৮জন যুবক রোপন করেন। কিন্তুু তাদের না জানিয়েই গাছগুলো কাটা শুরু করেন। অনুমোদন ছাড়াই বৃক্ষরোপন কারিদের না জানিয়ে তিনি গাছগুলো কাটা অন্যায় এবং অপরাধ করেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য জোড় দাবী জানাচ্ছি। জানতে চাইলে আব্দুস সালাম জানান, তিনি গাছগুলো কিনে নিয়েছেন মাত্র। গাছগুলো কাটতে দমদমা পূর্বপাড়া মসজিদের নামে একটি দরখাস্ত দেওয়া হয়। এরপর সড়ক ও জনপথ বিভাগ থেকে তাদের একটি কাগজ দিয়েছে। গাছগুলো কাটার কাগজ তার কাছে রয়েছে। কিন্তু তিনি সেই কাগজ কাউকে দেখাতে রাজী নয়। এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসা আদমদীঘি থানার উপ পরিদর্শক মানিক কুমার জানান আব্দুস সালাম অনুমোদনের কোনো কাগজ দেখাতে পারেন নি। গাছ কাটতে নিষেধ করা হয়েছে। সেই সাথে সংশ্লীষ্ট দপ্তরকে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে। জানতে চাইলে আদমদীঘি উপজেলা বন কর্মকর্তা মতিয়ার রহমান এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা (ইউএনও) জানান, বিষয়টি দেখা হবে। বগুড়া সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সুলতানা খানম জানান, ওই সড়কে গাছ কাটতে তাঁরা কাউকে অনুমোদন দেন নি। অবৈধভাবে গাছ কাটায় বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাস্থল থেকে ১০টি গাছ জব্দ করা হয়েছে। তদন্তপূর্বক জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।