ঢাকা ১১:৫৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বগুড়ার সান্তাহারে ৭২ হাজার টাকার জাল নোটসহ একজন গ্রেপ্তার জেলা যুবলীগের আয়োজনে ইফতার বিতরণ আদমদীঘিতে স্বামী স্ত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট মামলায় আরো দুইজন গ্রেফতার আদমদীঘিতে ট্রাকের ধাক্কায় একজন নিহত সিরাজদিখানে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে শিক্ষকদের করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ধুনট থিয়েটারের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় ঔষধ বাজারে সয়লাব বিক্রি নিষিদ্ধ ফিজিশিয়ান স্যাম্পলে সিরাজগঞ্জে বিশ্ব নাট্য দিবস পালিত মনন সাহিত্য সংগঠনের পাক্ষিক অধিবেশন এবং ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় সিএনজি চালিত গাড়ির সিলিন্ডার রি-টেস্টিং শতভাগ নিশ্চিত করা সময়েরদাবী গোমস্তাপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত নওগাঁয় সর্প দংশনে এক শিশুর মৃত্যু ( প্রতীকি ছবি) বগুড়ায় ধর্ষণের ঘটনা ধামা চাপা দিতে তামিমকে হত্যা করা হয়েছিলো বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনায় একজন ছুরিকাঘাত বাজার এলাকায় উত্তেজনা হলে ইউএনও ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন। নওগাঁয় প্রভাবশাী ক্ষমতাবলে দীর্ঘ ৩ মাস ধরে গৃহবন্দী পরিবার নওগাঁয় ভূমি অফিসে অভিযান দালাল চক্রের সদস্যকে অর্থদণ্ড নওগাঁর বিভিন্ন দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান ব্যবসায়ীকে জরিমানা বগুড়ায় ট্রাক ও অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৩ জনসহ নিহত ৪ আহত ২ আদমদীঘিতে শ্বাশুড়ীকে খুনের মামলায় জামাই প্রেফতার নওগাঁয় মাদক ও অসামাজিক কাজ বন্ধের মানববন্ধন টাঙ্গাইলের মধুপুরে কবর থেকে ৫টি কঙ্কাল চুরি

আদমদিঘী মুরইল বাজারে জরাজীর্ণ শহীদ মিনার

আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধি :
  • আপডেট সময় : ০৫:৩২:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুন ২০২৪ ৪২ বার পড়া হয়েছে

আদমদীঘির মুরইল বাজারে অবস্থিত মহান ভাষা আন্দোলনের স্মৃতিচিহ্ন শহীদ মিনারটি অযত্নে ও দেখভালের অভাবে আবারো জঙ্গলাকীর্ণ হওয়ার পাশাপাশি ছাগলের বিচরণে পরিণত হয়েছে। যথেচ্ছ ব্যবহার হচ্ছে এই শহীদ মিনারটি। যেন দেখার কেউ নেই। গত বছর সংবাদ প্রকাশের পর সেখানে পরিস্কার করা হলেও তা রক্ষনাবেক্ষণ না থাকায় বর্তমানে আবারো শহীদ মিনারটি করুণ অবস্থায় রয়েছে। এই শহীদ মিনারটির চারিদিকে নিরাপত্তা বেষ্টনি দিয়ে ঘিরে রাখার দাবি স্থানীয় বাসিন্দাদের। আদমদীঘি উপজেলার নসরতপুর ইউনিয়নের গুরুত্বপুর্ন মুরইল বাজার। আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক মরহুম মকলেছার রহমানের উদ্যোগে স্থানীয় নেতৃবর্গের সার্বিক সহযোগিতায় ২০১০ সালে মুরইল বাজারের পূর্ব ও উত্তর পাশে এই শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়। সেই থেকে প্রতি বছর স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবস, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসসহ অন্যান্য জাতীয় দিবস এই শহীদ মিনার পাদদেশে যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হতো। নসরতপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সম্পাদক রেবতী মোহন সাহার নেতৃত্বে সার্বক্ষণিক ভাবে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখা ও দেখভালও হতো ভালভাবেই। জাতীয় দিবসগুলোতে ফুলে ফুলে ভরে যেত এই শহীদ মিনার পাদদেশ। দীর্ঘদিন যাবত এই শহীদ মিনারটির পাদদেশে কোন জাতীয় দিবস পালন না করা এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা ও দেখভালের অভাবে আবারো শহীদ মিনারটি গাছগাছরা, লতাপাতায় ছেয়ে গেছে। সেখানে ছাগলের মলমূত্র ত্যাগের স্থানে পরিণত হয়েছে। এমনকি পথচারীরা এখানে প্রাকৃতিক ডাকে সারা দিতেও দ্বিধা করছেনা। আদমীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রেবতী মোহন সাহা জানায়, আগে শহীদ মিনারের যত্ন হয়েছে। নতুন ইউনিয়ন কমিটি হওয়ার পর থেকে আর এই শহীদ মিনারের যত্ন নেয়া হয়না। নসরতপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী জানান, গত বছর নিজের অর্থে শহীদ মিনারটি পরিস্কার করেছিলাম। বর্তমানে সরকারি ভাবে কোর অর্থ বরাদ্দ না থাকায় পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কিংবা নিরাপত্তা বেষ্টনি দেয়া সম্ভব হচ্ছেনা। তিনি শহীদ মিনারটি যথাযথ মর্যাদায় সংরক্ষণ করার জন্য প্রশাসনের নিকট দাবি জানান।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ads

আদমদিঘী মুরইল বাজারে জরাজীর্ণ শহীদ মিনার

আপডেট সময় : ০৫:৩২:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুন ২০২৪

আদমদীঘির মুরইল বাজারে অবস্থিত মহান ভাষা আন্দোলনের স্মৃতিচিহ্ন শহীদ মিনারটি অযত্নে ও দেখভালের অভাবে আবারো জঙ্গলাকীর্ণ হওয়ার পাশাপাশি ছাগলের বিচরণে পরিণত হয়েছে। যথেচ্ছ ব্যবহার হচ্ছে এই শহীদ মিনারটি। যেন দেখার কেউ নেই। গত বছর সংবাদ প্রকাশের পর সেখানে পরিস্কার করা হলেও তা রক্ষনাবেক্ষণ না থাকায় বর্তমানে আবারো শহীদ মিনারটি করুণ অবস্থায় রয়েছে। এই শহীদ মিনারটির চারিদিকে নিরাপত্তা বেষ্টনি দিয়ে ঘিরে রাখার দাবি স্থানীয় বাসিন্দাদের। আদমদীঘি উপজেলার নসরতপুর ইউনিয়নের গুরুত্বপুর্ন মুরইল বাজার। আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক মরহুম মকলেছার রহমানের উদ্যোগে স্থানীয় নেতৃবর্গের সার্বিক সহযোগিতায় ২০১০ সালে মুরইল বাজারের পূর্ব ও উত্তর পাশে এই শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়। সেই থেকে প্রতি বছর স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবস, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসসহ অন্যান্য জাতীয় দিবস এই শহীদ মিনার পাদদেশে যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হতো। নসরতপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সম্পাদক রেবতী মোহন সাহার নেতৃত্বে সার্বক্ষণিক ভাবে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখা ও দেখভালও হতো ভালভাবেই। জাতীয় দিবসগুলোতে ফুলে ফুলে ভরে যেত এই শহীদ মিনার পাদদেশ। দীর্ঘদিন যাবত এই শহীদ মিনারটির পাদদেশে কোন জাতীয় দিবস পালন না করা এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা ও দেখভালের অভাবে আবারো শহীদ মিনারটি গাছগাছরা, লতাপাতায় ছেয়ে গেছে। সেখানে ছাগলের মলমূত্র ত্যাগের স্থানে পরিণত হয়েছে। এমনকি পথচারীরা এখানে প্রাকৃতিক ডাকে সারা দিতেও দ্বিধা করছেনা। আদমীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রেবতী মোহন সাহা জানায়, আগে শহীদ মিনারের যত্ন হয়েছে। নতুন ইউনিয়ন কমিটি হওয়ার পর থেকে আর এই শহীদ মিনারের যত্ন নেয়া হয়না। নসরতপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী জানান, গত বছর নিজের অর্থে শহীদ মিনারটি পরিস্কার করেছিলাম। বর্তমানে সরকারি ভাবে কোর অর্থ বরাদ্দ না থাকায় পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কিংবা নিরাপত্তা বেষ্টনি দেয়া সম্ভব হচ্ছেনা। তিনি শহীদ মিনারটি যথাযথ মর্যাদায় সংরক্ষণ করার জন্য প্রশাসনের নিকট দাবি জানান।